সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ :: বারুইপুর :: গোপন সূত্রে ভাঙড় থানার পুলিশ খবর পায় ক্যানিংয়ের নিকারীঘাটা এলাকা থেকে আজিজুল সরদার নামে ওই যুবক বাইকে করে ভাঙড়ে বন্দুক বিক্রি করতে আসছে। খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভাঙড় থানার পুলিশের একটি দল মিলন বাজার এলাকায় নাকা চেকিং শুরু করে। সেখানে আজিজুল সরদারের বাইক আসতে দেখেই পুলিশকর্মীরা কার্যত ঘিরে ফেলে তাকে।

তারপর তল্লাশি চালিয়ে আজিজুল সরদারের কাছে থেকে একটি ওয়ান শাটার বন্দুক ও দু রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ কর্মীরা। সঙ্গে সঙ্গে আজিজুল সরদারকে গ্রেফতার করে ভাঙড় থানায় নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশকর্মীরা জানতে পারে আজিজুল সরদারের বাবা আমির উদ্দিন সরদার নিকারীঘাটা এলাকায় একটি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির কারখানা চালাত।

বর্তমানে সেই কারখানা না থাকলেও এই বন্দুকের উৎস কোথায় তার তদন্ত শুরু করেছে ভাঙড় থানার পুলিশ কর্মীরা। আজিজুল সরদারকে গ্রেপ্তার করে বুধবার বারুইপুর মহকুমা আদালতে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ভাঙড় থানার পুলিশ কর্মীরা।