আবার উত্তর প্রদেশের মন্দিরে অঙ্গনওয়াড়ি মহিলা কর্মীকে গণধর্ষণ করে খুন – ধৃত অভিযুক্ত প্রধান পুরোহিত সহ তিন !

কুমার পঙ্কজ :: সংবাদ্প্রবাহ টিভি.কম  :: ৮ই.জানুয়ারি :: নয়াদিল্লি :: খুনের পর ওই পুরোহিত গ্রাম ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করছিল সেই সময় স্থানীয়রা তাকে ধরে ফেলে এবং পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পুরোহিতের গ্রেপ্তারিতে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিল পুলিশের কাছ থেকে। পুলিশ জানিয়েছে, ওই পুরোহিত মন্দিরেই থাকত, যেখানে ৫০ বছরের মহিলাকে গণধর্ষণ করে খুন করা হয় রবিবার রাতে। পুরোহিতের সঙ্গে আরও দু’‌জন এই নৃশংস অপরাধের সঙ্গে যুক্ত ছিল। বুধবার ওই দু’‌জনকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, বরেলি জেলার আওনলা গ্রামের আসিন্দা ওই পুরোহিত। সে সাত বছর আগে বদায়ুঁতে চলে আসে এবং মন্দিরে থাকতে শুরু করে। পুলিশে অভিযোগ অনুযায়ী, রবিবার দুপুরে গ্রামের বাইরে অবস্থিত মন্দিরে গিয়েছিলেন ওই মধ্যবয়সী মহিলা এবং তারপর আর ফিরে আসেননি। এরপর রাতে, পুরোহিত এবং তার দুই সাগরেদ মহিলার দেহ একটি এসইউভি গাড়িতে করে বাড়িতে দিয়ে আসে এবং পরিবারকে জানায় যে মহিলা মন্দির সংলগ্ন শুকনো কুয়োতে পড়ে গিয়েছিল।

এরপর তারা ঘটনাস্থল ছেড়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরিবারের সদস্যরা পুলিশে খবর দেয় এবং মহিলার দেহ সোমবার সন্ধ্যায় ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে ধর্ষণের কথা জানা যায়। ময়ানাতদন্তে এও বলা হয়েছে যে তাঁর বুকের পাঁজর ভেঙে গিয়েছে এবং বাঁদিকের ফুসফুসও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ভারী কোনও বস্তুর কারণে। বদায়ুঁর সিএমও ডাঃ যশপাল সিং জানান যে মহিলা আতঙ্ক ও অতিরিক্ত রক্তপাতের ফলে মারা যান। সরকারের তরফ থেকে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করা হয় ।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *