উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরিতে প্রিয়াংকা গান্ধী গ্রেফতার !

কুমার পঙ্কজ :: সংবাদ প্রবাহ :: ৫ই অক্টোবর :: নয়াদিল্লি :: ২৪ ঘণ্টা একটি গেস্ট হাউসে আটক রাখার পর কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াংকা গান্ধীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কংগ্রেসের এই নেত্রীর সঙ্গে অন্তত আরও ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আমলযোগ্য অপরাধ (কগ্নিজেবল অফেন্স )সংঘটনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

লখিমপুর খেরিতে গাড়ি চাপায় আটজনের মৃত্যুর ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন কংগ্রেসের এই নেত্রী। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানায়, যে গেস্ট হাউসে প্রিয়াংকাকে আটক করে রাখা হয়েছিল, সেখানেই অস্থায়ী জেল তৈরি করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, প্রিয়াংকাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তাদের মধ্যে কংগ্রেস নেতা দীপেন্দ্র হুডা, অজয় কুমার লাল্লুও রয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে ১৪৪ ধারা ভঙ্গের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। শিগগিরই তাদের আদালতে তোলা হবে।

জানা গেছে, সংঘর্ষের ঘটনায় আটজনের মৃত্যুর পরে রোববার রাতেই লখিমপুর খেরির উদ্দেশে রওনা দেন প্রিয়াংকা। পথিমধ্যে সীতাপুরে তার বহর আটকে দেয় যোগীরাজ্যের পুলিশ। পরে তাকে পুলিশ আটক করে। এ সময় তাকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ করে কংগ্রেস। তার হাতে হাতকড়া পরানো হয়। প্রিয়াংকা গাড়ির বহর আটকানোর পরে পুলিশের সঙ্গে তিনি বিতণ্ডায় জড়ান। সংবাদমাধ্যমে বেশ কয়েকটি ভিডিয়ো প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে, পুলিশ প্রিয়াংকাকে লখিমপুর যেতে নিষেধ করছে। অন্যদিকে, প্রিয়াংকা বলছেন, তাকে আটকানোর অধিকার নেই পুলিশের। তিনি পুলিশের কাছে জানতে চান তাদের কাছে ওয়ারেন্ট রয়েছে কিনা।

এরপর সীতাপুরে একটি গেস্ট হাউসে আটক রাখা হয় প্রিয়াংকা গান্ধীকে। সেখান থেকেই মঙ্গলবার সকালে টুইটারে একটি ভিডিও বার্তায় মোদি সরকারকে আক্রমণ করেন প্রিয়াংকা গান্ধী। এর পরেই উত্তরপ্রদেশ পুলিশ জানায়, গ্রেফতার করা হয়েছে কংগ্রেস নেত্রীকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + 15 =