নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ ::নয়াদিল্লি :: এবারের টি-২০ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কাছে লজ্জাজনকভাবে হেরে গেছে ভারত। তবে নিজের দেশ হারলেও পাকিস্তানের জয়ে রীতিমতো আনন্দে মেতেছেন এক তরুণী। শুধু ওই তরুণীই নন, তার পুরো পরিবারই শামিল হয়েছে সেই আনন্দে। আর এতেই রেগে আগুন ওই তরুণীর স্বামী। রেগে শেষমেষ পুলিশের কাছে গিয়ে স্ত্রী আর শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে এফআরআই দায়ের করেন তিনি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঈশান মিঞা নামে ওই ব্যক্তি পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন যে পাকিস্তান ভারতকে হারানো পর তার স্ত্রী রাবেয়া শামসি আনন্দে মেতে ওঠেন। শুধু রাবেয়া নন, তার বাড়ির লোকজনও এই আনন্দে শামিল হন। ঈশানের অভিযোগ, তার স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন পাকিস্তান জয়ের আনন্দে বাজি পোড়াতে শুরু করেন। এমনকি তারা হোয়াটসঅ্যাপ স্ট্যাটাসও বদলে দেন। পুলিশ ঈশানের অভিযোগের ভিত্তিতে এফআইআর দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উত্তরপ্রদেশের রামপুরের আজিমনগরের বাসিন্দা ঈশান মিঞার সঙ্গে বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই তার স্ত্রী রাবেয়া শামসি আলাদা থাকেন। রাবেয়া বাবার বাড়িতে থাকলেও তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়নি। এদিকে, গত রবিবার ভারত-পাকিস্তানের ওই ম্যাচে ভারত হারার পর রাজস্থানের এক শিক্ষিকা হোয়াটসঅ্যাপে পাকিস্তানের জয় উদযাপন করে স্ট্যাটাস দিয়ে চাকরি খুইয়েছেন।