নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: করোনাভাইরাসের ধাক্কায় আমাদের দেশে  মানুষের গড় আয়ু কমেছে দু’বছর। ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ পপুলেশন সায়েন্সেস (আইআইপিএস) এবং জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের (জেএনইউ) যৌথ গবেষণায় এমনই তথ্য উঠে এসেছে। গবেষকদের দাবি, করোনার জেরে ৩৫-৭৯ বছরের মধ্যে যে অত্যধিক মৃত্যু হয়েছে, তার ফলেই কমেছে মানুষের গড় আয়ু।

গত বৃহস্পতিবার বিএমসি পাবলিক হেলথে প্রকাশিত গবেষণা অনুযায়ী, বয়সভিত্তিকে মৃত্যুর নিরিখে নারীদের থেকে পুরুষদের উপর মহামারীর বেশি প্রভাব পডেছে। আইআইপিএসের সূর্যকন্ত যাদব বলেছেন, ‘বয়সের ভিত্তিতে মৃত্যুর ক্ষেত্রে যে অসাম্য আছে, তা পুরুষদের ক্ষেত্রে বেশি।’ সঙ্গে তিনি যোগ করেন, ‘মহিলাদের থেকে পুরুষরা বেশি বাহ্যিক বিষয়ের সম্মুখীন হওয়ার কারণে সেটা হতে পারে।’

ওই গবেষণার জন্য ‘কোভিড-১৯ ইন্ডিয়া অ্যাপ্লিকেশন প্রোগামিং ইন্টারফেস’ (এপিআই) পোর্টাল থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। গত বছরের ৩০ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত তথ্য জোগাড় করেছিলেন গবেষকরা।

তারা জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস-সহ মৃত্যুর ২২টি কারণ চিহ্নিত করেছিলেন। সেই তথ্য বিশ্লেষণের মাধ্যমে গবেষকরা দেখেন যে ভারতে মানুষের গড় আয়ু দু’বছর কমে গিয়েছে। গবেষণা অনুযায়ী, গড় আয়ু যে ছয় থেকে আট বছর বেড়েছিল, তা কমিয়ে দিয়েছে করোনাভাইরাস মহামারী। মৃত্যুর ক্ষেত্রে পাঁচ বছরের যে পার্থক্য ছিল, তাও করোনা মহামারীর ধাক্কায় বাতিল হয়ে গিয়েছে। ওই গবেষণায় জানানো হয়েছে, মানুষের গড় আয়ুর ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে করোনা মহামারী।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here