কালিয়াগঞ্জে মা ও বোনেদের নিয়ে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: উত্তর দিনাজপুর :: স্বাস্থ্য আমাদের সম্পদ,তাই নিজে ও নিজের পরিবারের লোকেদের স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য আমাদের পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে।সেই কারণে রাজ্য জুড়ে নির্মল বাংলা গড়ার লক্ষ্যে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।যার মধ্যে অন্যতম হলো “উৎসে বর্জ্য পৃথকীকরণ”।এর মধ্য দিয়ে বাড়িতে মা ও বোনেদের নিজেদের বাড়ির পচনশীল ও অপচনশীন সামগ্রী আলাদা করে রাখতে হবে।

রাজ্য জুড়েই প্রতিটি পুরসভার পক্ষ থেকে ইতিমাধ্যেই দুই করে ডাস্টবিন দেওয়া হয়েছে।নীল রঙের ডাস্টবিনে অপচনশীল সামগ্রী ও সবুজ রঙের ডাস্টবিনে পচনশীল সামগ্রী রাখতে হবে।পুরসভার সাফাই কর্মীরা বাড়ি বড়ি এসে আলাদা আলাদা ভাবে তা সংগ্রহ করবে।সেই মতাবেক এই প্রকল্পকে সাফল্য মন্ডিত করতে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ পুরসভার উদ্যোগে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আগামী ১৫ ডিস্বম্বর থেকে ২ নম্বর ও ১৪ নম্বার ওয়ার্ডকে পাইলট প্রকল্প হিসাবে ধরা হয়েছে।আগামীতে ধাপে ধাপে প্রতিটি ওয়ার্ডেই শুরু হবে। সেই কারণে বৃহস্পতিবার পুরসভার উদ্যোগে ২ নম্বার ওয়ার্ডের পার্বতী সুন্দরী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ওয়ার্ডের মা ও বোনেদের নিয়ে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।সেখানে মা ও বোনেদের বোঝানো হয় পচনশীল ও অপচনশীল কিভাবে চিহ্নিত করে আলাদা আলাদা পুরসভা থেকে দেওয়া ডাস্টবিনে রাখবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 − 4 =