সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ :: কুলতলি :: আবারও সুন্দরবনের খাঁড়িতে কাঁকড়া ধরতে গিয়ে দক্ষিণ রায়ের মুখ থেকে রীতিমতো জখম হয়ে প্রাণে বেঁচে ফিরলেন দুই কাঁকড়া শিকারি l আহতদের নাম খোকন মুন্ডা ও অমল দন্ডপাট ।

কুলতলি ব্লকের মৈপীঠ উপকূল থানা এলাকার নগেনাবাদ গ্রামের খোকন মুন্ডা ও অমল দণ্ডপাট নৌকা নিয়ে গিয়েছিল সুন্দরবনের খাঁড়িতে কাঁকড়া ধরতে l তাদের সঙ্গে ছিল প্রতিবেশ দীপক মন্ডল নামের আরও একজন l

শুক্রবার সন্ধ্যার পর বেণীফিলি জঙ্গলের পাশে রঙমারি খালের মধ্যে দিয়ে যখন নৌকা যাচ্ছিল ঠিক সেই সময়ে জঙ্গল থেকে একটি বাঘ আচমকা ঝাঁপিয়ে পড়ে নৌকার উপর l কিছু বুঝে ওঠার আগে থাবা বসিয়ে দেয় অমলের মাথায় ও মুখে । তীক্ষ্ণ নখের আঁচড়ে মাথায় ও মুখ মারাত্মক ভাবে জখম হয় l এর পর বাঘটি আঁচড়ে দেয় সঙ্গী খোকনকেও l

এরপর লাঠিসোটা নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুললে রণে ভঙ্গ দিয়ে জঙ্গলে গাঢাকা দেয় বাঘটি । রক্তাক্ত অবস্থায় দুই সঙ্গীকে নিয়ে দীপক তাড়াতাড়ি রাতেই ফিরে আসে গ্রামে । এরপর পরিবার ও প্রতিবেশীরা দুজনকে নিয়ে যায় স্থানীয় হাসপাতালে । সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু হলেও আমলের অবস্থা আসংখ্যাজনক হওয়ায় তাকে কলকাতায় স্থানান্তরিত করা হয় ।