কোভ্যাক্সিন এবার দুই থেকে ১৮ বছরের শিশু এবং কিশোরদের জন্যও

নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: নয়াদিল্লি :: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগের অনুমোদন এখনো দেয়নি। কোভিডের মোকাবিলায় ভারতের এক শ শতাংশ নিজস্ব প্রতিষেধক ‘কোভ্যাক্সিন’ অনুমোদন পায়নি অধিকাংশ পশ্চিমা দেশেরও। তবু হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেকে তৈরি কোভ্যাক্সিন টিকা দেশের ২ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের এবার থেকে দেওয়া যাবে।

মঙ্গলবার ভারত বায়োটেককে এই ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের অধীনস্থ ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ডিসিজিআই) এই অনুমোদন দিয়ে বলেছে, সংস্থার বিশেষজ্ঞ কমিটি শিশুদের প্রয়োগের ক্ষেত্রে এই টিকাকে সবুজ সংকেত দিয়েছে।

এত দিন ১২ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল একমাত্র জাইডাস ক্যাডিলাকে। গুজরাটের এই সংস্থা সেই অনুমোদন পেয়েছিল গত মাসে। জাইডাস ক্যাডিলার তৈরি প্রতিষেধক‘ জাইকভ-ডি’ ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের দেওয়ার অনুমোদন পেয়েছিল। সেই টিকা দেওয়ার কথা তিনটি করে। তুলনায় কোভ্যাক্সিন পেল ২ থেকে ১২ বয়সীদের জন্য অনুমোদন। ডোজের সংখ্যা দুই। শিশু ও কিশোরদের টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে কোভ্যাক্সিনই প্রথম অনুমোদন পেল।

ভারত বায়োটেক জানিয়েছে, এই টিকার দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা শেষ হয়েছে গত সেপ্টেম্বর মাসে। অক্টোবরের প্রথম দিকে সেই পরীক্ষার ফল তারা ডিসিজিআইয়ের কাছে জমা দেয়। পরীক্ষা ও তার ফলের বিচার করে মঙ্গলবার তাদের এই অনুমোদন দেওয়া হয়। ভারত বায়োটেক জানিয়েছে, তারা কোভ্যাক্সিন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ‘ডব্লিউএইচও’র কাছে পাঠিয়েছে গত ৯ জুলাই। ডব্লিউএইচও আপাতত তা বিবেচনা করে দেখছে। বিশেষ করে বিবেচনা করছে শিশুদের ক্ষেত্রে এই টিকার কার্যকারিতা নিয়ে।

তৃতীয় ঢেউয়ে শিশুরা বেশি আক্রান্ত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সেই কারণে শিশুদের টিকাকরণের ওপর সরকার জোর দিচ্ছে বলে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেস এর পরিচালক রণদ্বীপ গুলেরিয়া জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × one =