খাবারের সন্ধানে ঝাড়গ্রাম ব্লকের কয়েকটি গ্রামে১১ টি হাতির তাণ্ডব আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা

দেবেন তেওয়ারী :: সংবাদ প্রবাহ :: ঝাড়গ্রাম :: একদিকে মেঘলা আকাশ সঙ্গে ঝির ঝিরে বৃষ্টি কনকনে ঠান্ডা তারই মাঝে হাজির বৃহস্পতিবারসাত সকালে ১১ টি দাঁতাল হাতির পাল । যার ফলে আতঙ্ক ছড়ায় ঝাড়গ্রাম জেলার ঝাড়গ্রাম ব্লকের সাপধরা অঞ্চলের পুকুরিয়া, চাঁদাবিলা, মাসাং ডিহি গ্রামে। লোকালয়ে ঢুকে ব্যাপক তাণ্ডব চালায় দাঁতাল হাতির পাল।

চাঁদাবিলা গ্রামে একটি মাটির বাড়ি সম্পূর্ণ ভেঙ তছনছ করে দেয়।সেই সঙ্গে আরো কয়েকটি বাড়ির ক্ষতি করে হাতির দল।খামারে থাকা ধান খেয়ে তাণ্ডব চালায় হাতির পাল। এছাড়া ও ফসলের ও ক্ষতি করে ।

গ্রামবাসীরা বিষয়টি বন দফতর কে জানিয়েছেন। যেভাবে হাতির পাল একের পর এক গ্রামে ঢুকে খাবারের সন্ধানে তাণ্ডব শুরু করেছে তাতেই যথেষ্ট আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। ঝাড়গ্রাম এর জঙ্গল লাগুয়া গ্রামগুলিতে হাতির হামলার ঘটনা নতুন নয় ।কিন্তু যেভাবে কখনো দলছুট হয়ে, কখনো বা একসঙ্গে অনেক হাতি গ্রামে ঢুকে খাবারের সন্ধানে তাণ্ডব শুরু করেছে তাতে নতুন করে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে গ্রামবাসীদের মধ্যে ।তাই গ্রামবাসীদের দাবি হাতির পালকে অন্যত্র নিয়ে যাওযার ব্যবস্থা করুক বন দফতর। যেভাবে ওই ১১ টি হাতির পাল লোকালয়ে ঢুকে তাণ্ডব শুরু করেছে তাতে যথেষ্ট আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন গ্রামবাসীরা।

হাতির হামলার হাত থেকে বাঁচার জন্য গ্রামবাসীরা হুলা জ্বালিয়ে হাতির দলকে প্রায় ঘন্টা তিনেকের চেষ্টায় স্থানীয় জঙ্গলের দিকে পাঠায়। গ্রামবাসীদের আশঙ্কা এর পর সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে হাতির দল ফের লোকালয়ে ঢুকে পড়বে। তাই যথেষ্ট আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন ওই এলাকার গ্রামবাসীরা ।

বনদপ্তর এর পক্ষ থেকে গ্রামবাসীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাতির দলের গতিবিধির ওপর নজর রাখা হয়েছে বলে জানানো হয় বন দফতরের তরফ থেকে ।তা সত্ত্বেও হাতির হামলার আশঙ্কায় আতংকের মধ্যে রয়েছেন ওই এলাকার গ্রামগুলির বাসিন্দারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *