গঙ্গাসাগর মেলার আয়োজনে সায় দিল কলকাতা হাই কোর্ট।

সুদেষ্ণা মন্ডল:: সংবাদ প্রবাহ :: গঙ্গাসাগর :: গঙ্গাসাগর মেলার আয়োজনে সায় দিল কলকাতা হাই কোর্ট। শুক্রবার শর্তসাপেক্ষে এ বছর সাগরমলার আয়োজনে সম্মতি দেওয়া হয়েছে। করোনা সংক্রমণের আবহে এ বছরে গঙ্গাসাগর মেলা বন্ধ রাখার আবেদন জানিয়ে কলকাতা হাই কোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন চিকিত্‍সক অভিনন্দন মণ্ডল। বুধবার সেই মামলার প্রথম শুনানি হয়েছিল প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব এবং বিচারপতি কেসাং ডোমা ভুটিয়ার ডিভিশন বেঞ্চে।

আবেদনকারী পক্ষের আইনজীবী শ্রীজীব চক্রবর্তী আদালতে জানান, গঙ্গাসাগর মেলায় প্রতি বছর ১৮-২০ লক্ষ মানুষ আসেন। ২০২১ সালে করোনা পরিস্থিতিতেও ৮ লক্ষ পুণ্যার্থী এসেছিলেন। রাজ্য সরকার সম্প্রতি নির্দেশিকা জারি করেছে কোনও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি জমায়েত করতে পারবেন না।

সাগরমেলার মতো ধর্মীয় অনুষ্ঠানে তা হলে কেন অনুমতি দেওয়া হচ্ছে, সে প্রশ্নও তোলেন তিনি। দুই বিচারপতির বেঞ্চ রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল (এজি) সৌমেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়ের কাছে এ বিষয়ে সরকারের অবস্থান জানতে চেয়েছিল।

জবাবে বৃহস্পতিবার এজি জানান, কোভিড বিধি মেনে গঙ্গাসাগর মেলার আয়োজন করা হয়েছে। পর্যাপ্ত পরিমাণে স্যানিটাইজার, মাস্ক ও চিকিত্‍সা সরঞ্জামের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে সাগরমেলায়। থাকছে অ্যাম্বুল্যান্সও। পাশাপাশি মেলায় কোভিড সুরক্ষা বাড়াতে কোভিড হাসপাতাল ১০০ বেডের বেশি রাখা হয়েছে ।

ওয়াটার অ্যাম্বুলেন্স ও এয়ার অ্যাম্বুলেন্স সম্পূর্ণ প্রস্তুত রাখা হয়েছে। কোভিড সুরক্ষা বাড়াতে পর্যাপ্ত পরিমাণ আধুনিক সুরক্ষা রাখা হয়েছে।

আজ গঙ্গাসাগর মেলার উদ্বোধন করলেন রাজ্যের সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা, তিনি জানান জেলা প্রশাসন প্রশাসন প্রস্তুত সরকারি নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে গঙ্গাসাগর মেলা করা হবে। করোনা স্বাস্থ্যবিধির কথা মাথায় রেখে “মাস্ক ছাড়া, গঙ্গাসাগরে প্রবেশ করা যাবে না কোনো তীর্থযাত্রীকে”। করোনার কথা মাথায় রেখে কচুবেড়িয়া ফেরিঘাট থেকে মন্দির প্রাঙ্গণ পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গায় থাকবে স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 + nineteen =