BREAKING NEWS ::গতকাল রাতে বৌভাতে যাওয়ার পথে উত্তরবঙ্গের ধূপগুড়িতে ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনায় নিহত ১৪

সংবাদ্প্রবাহ টিভি ডট কম নিউজ ডেস্ক :: ২০শে জানুয়ারি :: ধূপগুড়ি ::

বৌভাতের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে পাথরবোঝাই ডাম্পারের নিচে চাপা পড়ে

নিহত হয়েছেন ১৪ জন।

 

মঙ্গলবার রাতে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ধূপগুড়িতে। নিহতের মধ্যে পুরুষ ও নারী ছাড়া তিনটি শিশুও রয়েছে। নিহতরা ময়নাগুড়ির চূড়াভাণ্ডার, রানিরহাট মোড় ও মালবাজারের ডামডিম এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেছে। তবে তাদের সকলের পরিচয় এখনো জানা যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই দিন রাত ৯টা নাগাদ তিনটি ছোট গাড়ি করে ধূপগুড়ির ময়নাতলি এলাকায় বৌভাতের অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন কনেপক্ষের আত্মীয়রা। রাস্তা ফাঁকা থাকায় উল্টো দিকের লেন ধরেই গাড়িগুলো যাচ্ছিল। এ সময় সঠিক লেন ধরেই উল্টো দিক থেকে ১০ চাকার একটি পাথরবোঝাই ডাম্পার ময়নাগুড়ির দিকে যাচ্ছিল।

জলঢাকা সেতুর কাছে কনেযাত্রীদের একটি গাড়ির সাথে মুখোমুখি ধাক্কা লাগে ডাম্পারটির। ফলে সেটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডিভাইডারে উঠে কাত হয়ে যায়। এ সময় পাশ কাটিয়ে কনেযাত্রীদের বাকি দুটো গাড়ি যাওয়ার চেষ্টা করতেই ডাম্পারটি গাড়ি দুটোর ওপর উল্টে যায়। যাত্রীসহ ডাম্পারে চাপা পড়ে গাড়ি দুটো। ঘটনাস্থলেই তিন শিশুসহ ১২ জনের মৃত্যু হয়। হাসপাতালের পথে আরো ২ জনের মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ডাম্পারের সামনে একটি লরি ছিল। যেটা খুব আস্তে যাচ্ছিল। লরিটিকে ওভারটেক করার চেষ্টা করে ডাম্পারের চালক। এ সময় উল্টো লেন ধরে আসা কনেযাত্রীর একটি গাড়ির সাথে মুখোমুখি ধাক্কা লাগে ডাম্পারটির।

ধূপগুড়ির বিধায়ক মিতালি রায় বলেন, ‘দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৪ জন নিহত হয়েছেন। গোটা বিষয়টি আমি মুখ্যমন্ত্রীকে জানিয়েছি। মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সাথে কথা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে অনেকের পরিচয় এখনো জানা সম্ভব হয়নি। দুর্ঘটনার জেরে এশিয়ান হাইওয়ে ৪৮ এ দীর্ঘক্ষণ গাড়ি চলাচল বন্ধ ছিল। রাত ৯টা থেকে রাত ১টা পর্যন্ত উদ্ধার কাজ চলে। রাত ২টার পর রাস্তা স্বাভাবিক হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × three =