গোপন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার নাম করে একাধিকবার ধর্ষণ, অপমানে আত্মঘাতী কলেজ ছাত্রী।

নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ ::বসিরহাট :: পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উত্তর 24 পরগনার বসিরহাট মহাকুমার মিনাখাঁর মঠবাড়ী এলাকায় তানিয়া খাতুন নামে এক কলেজ ছাত্রী কে ঠান্ডা পানীয় সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে টাকি গেস্ট হাউসে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে হাসনাবাদের দক্ষিণ ভেবিয়ার এক ব্যক্তি। ধর্ষণের সেই ছবি মোবাইল তুলে রেখে দেয় অভিযুক্ত। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে মাঝেমধ্যে অভিযুক্ত ওই কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ করত।

এই ঘটনার কথা গত কয়েকমাস আগে হাসনাবাদ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিল ছাত্রীর পরিবার। কিন্তু পুলিশ ভালোভাবে গুরুত্ব দেয়নি বলে অভিযোগ পরিবারের। মৃত ছাত্রীর মায়ের অভিযোগ অভিযুক্ত গত বুধবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার নাম করে ডাকে তার মেয়েকে । অভিযুক্তর কথায় রাজি না হাওয়ায় তার মেয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

স্থানীয়রা প্রথমে মিনাখাঁ গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কলকাতার একটি সরকারি হাসপাতালে নিয়োগ। বৃহস্পতিবার বিকেলে মৃত্যু হয় ওই ছাত্রীর। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে পরিবারে। অপরদিকে অভিযুক্ত হাবিবুল পলাতক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *