নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কলকাতা :: গরু তৃণভোজী প্রাণী। সাধারণত ঘাস, লতাপাতা খেয়েই জীবনধারণ করে প্রাণীটি। তবে তৃণভোজী এই প্রাণীটি ভুলে খেয়ে ফেলছে ২০ গ্রাম ওজনের (প্রায় দুই ভরি) সোনার চেন। আর দামি এই অলংকার খুইয়ে তো গরুর মালিকের মাথায় হাত ! ইন্ডিয়া টাইমস এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কর্ণাটকের উত্তর কন্নড় জেলার সিরসি তালুকের হিপানহাল্লিতে এ ঘটনা ঘটে।

সেখানকার বাসিন্দা শ্রীকান্ত হেগড় গৌ পূজা উপলক্ষ্যে তার পোষা বাছুরটিকে সোনার চেইনটি পরিয়ে দেন। এরপর চেইনটি খুলে ফুল ও পূজার অন্যান্য সামগ্রীর সঙ্গে গরুর সামনে রাখা হয়। কিছুক্ষণ পর পরিবারের সদস্যরা চেইনটিকে সেখানে না দেখে খোঁজাখুজি শুরু করেন। চেইনটিকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে হঠাৎ তাদের সন্দেহ হয় যে সামনে রাখা ফুলের সঙ্গে হয়তো চেনটিও গরু খেয়ে ফেলেছে।

এই ঘটনার পর পরিবারের সদস্যরা মাসখানেক ধরে গরুটির গোবর পর্যবেক্ষণ করেন। কিন্তু তারপরও চেনটি না পেয়ে হতাশ হয়ে তারা পশু চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়। পশু চিকিৎসক মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে গরুটির পেটে ধাতব বস্তুর উপস্থিতি টের পান। এরপর স্ক্যানিং করে গরুর পেটের ঠিক কোথায় চেইনটি আছে তা শনাক্ত করা হয়।

পরিবারের সবার অনুরোধে চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে চেনটি অপসারণ করেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় চেনটি অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। কিছু অংশ ছিঁড়ে যাওয়ায় প্রায় ১৮ গ্রাম ওজন হয়েছে চেনটির। অস্ত্রোপচারের ধকল কাটিয়ে গরুটি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছে বলেও জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here