নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: জগদ্দল :: প্রতিদিনই সন্ধে নামতেই জগদ্দল থানার ভাটপাড়া পুরসভার ২০ নম্বর ওয়ার্ডের রেললাইনের ধারে শিবমন্দির তলায় মদ-গাঁজার ঠেকে আসর বসে।

শনিবার রাতে সেই আসরে যোগ দেয় রোহিত দাস ও তাঁরই অন্তরঙ্গ বন্ধু করন যাদব। ভাটপাড়ার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের শান্তি নিবাস পল্লীতে ভাড়া থাকে রোহিত।করন ২০ নম্বর ওয়ার্ডের সূর্যসেন নগরের বাসিন্দা। অভিযোগ, ওইদিন মধ্যরাতে নেশার আসরে বচসার জেরে রোহিতের পেটে গুলি মারে করন। পেটে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বাড়ির কাছে গিয়েই লুটিয়ে পড়ে রোহিত।

তাকে তৎক্ষনাৎ ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অন্য হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার আগেই রোহিতের মৃত্যু হয়।

মৃতের বাবা প্রদীপ দাস রবিবার সকালে জগদ্দল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। যদিও ঘটনার পর থেকেই বেপাত্তা ছিল অভিযুক্ত করণ। তবে গোপন সূত্র খবর পেয়ে মূল অভিযুক্ত করণ যাদবকে রানাঘাট থেকে গ্রেপ্তার করে জগদ্দল থানার পুলিশ। ইতিমধ্যেই তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।