জমি বিবাদ নিয়ে তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামীকে মারধর।

কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামীকে মারধর। দুই প্রতিবেশী জমি বিবাদ মেটাতে গিয়ে আক্রান্ত মানিকচকের নাজির পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান বিনা মণ্ডলের স্বামী সুনীল মণ্ডল। অভিযোগ বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে। মানিকচক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের।ঘটনায় বিজেপি কর্মীদের যুক্ত থাকার কথা অস্বীকার জেলা বিজেপি নেতৃত্বের।

এই ঘটনায় বিজেপিকে হুঁশিয়ারি তৃণমূল নেতৃত্বের। সম্প্রতি মানিকচকের নাজির পুর গ্রাম পঞ্চায়েত হাতছাড়া হয়েছে বিজেপির। বিজেপির কয়েকজন সদস্য তৃণমূলে যোগদান করায় অপসারিত হয়েছেন বিজেপি প্রধান। নতুন প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন তৃণমূলের বিনা মন্ডল।

অভিযোগ গতকাল ওই পঞ্চায়েতের রায় পাড়া এলাকায় জমি নিয়ে দুই প্রতিবেশী বিবাদ মেটাতে গিয়েছিলেন প্রধানের স্বামী সুনীল মণ্ডল। সেই সময় তার উপর হামলা চালানো হয়। মারধর করা হয় সুনীল মণ্ডলকে। সুনিল মন্ডলের অভিযোগ বিজেপি কর্মীরা তাকে মারধর করেছেন। বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করায় তার ওপর হামলা করা হয়েছে।

এই বিষয়ে প্রধান বিনা মন্ডল বলেন, এরকম ঘটনা ঘটলেই পঞ্চায়েতের কাজ করা সম্ভব হবে না। প্রশাসনকে জানিয়েছি বিষয়টি দেখার জন্য।এই ঘটনাই মানিকচক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। যদিও বিজেপির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলা বিজেপি সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল। তিনি বলেন, বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যাওয়াই মানুষের মধ্যে একটা রোষ রয়েছে। তারই বহিঃপ্রকাশ হয়েছে। এই ঘটনায় কোন বিজেপি কর্মী জড়িত নয়।

যদিও পাল্টা বিজেপিকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। মালদা জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র শুভময় বসু বলেন, এই ঘটনায় আমরা স্তম্বিত। আমরা চাইলে কেউ এখানে বিজেপি থাকবেনা। ধৈর্যের বাধ অতিক্রান্ত হচ্ছে। বিজেপি এমন বুঝবো যে বাংলার মানুষ ওদেরকে তাড়া করবে। প্রশাসনকে বিষয়টি জানানো হয়েছে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *