ডায়মন্ডহারবারের হুগলি নদীর তীরবর্তী ক্রিক খালের পাশে বড়োসড়ো ধস , আতঙ্কিত বাসিন্দারা

সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ :: ডায়মন্ড হারবার :: ডায়মন্ডহারবারের হুগলি নদীর তীরবর্তী ক্রিক খালের পাশে বড়োসড়ো ধস। বেশ কয়েকটি পরিবারকে ইতিমধ্যেই স্থানীয় স্কুলে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে। একের পর এক দুর্যোগে বিধ্বস্ত হয়েছে বাংলা। পুজোর আগে থেকে শুরু হয়ে পুজোর পর অবধি বাংলার আকাশে ছিল দুর্যোগের ঘনঘটা। এখন পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক।

কিন্তু কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি ও পূর্ণিমার কোটালের জেরে হটাৎ নেমেছে ধস। শনিবার সকালে পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের হুগলি নদীর সাথে যুক্ত ক্রিক খাল লাগোয়া শান্তিপল্লীতে ধস নামতে দেখা যায় । আর এর ফলে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে স্থানীয় বাসিন্দারা ।ধসের জেরে ফাটল দেখা দেয় অনেক বাড়িতে। খবর পেয়েই দ্রুত সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। প্রশাসনের তরফে এলাকার মানুষকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যেই কিছু মানুষকে স্থানীয় ডায়মন্ডহারবার হাইস্কুলে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বেলায় আরও কিছু মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। ধসের প্রভাবে বহু পাকা বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে । বাড়ির দেয়াল গুলিতে দেখা দিয়েছে ফাটল। বাসিন্দাদের অনেকেই বাড়ির জিনিসপত্র সরিয়ে নিতে শুরু করেছে। স্থানীয় বাসিন্দা ঝুম্পা বৈদ্য জানায় বাড়ির দেওয়াল ভাঙতে শুরু করেছে। এর মধ্যেই এক কোমর পর্যন্ত ভেঙে গিয়েছে। ভিত থেকে দেওয়াল খুলে গিয়েছে । খবর পেয়ে ছুটে আসেন বিধায়ক পান্নালাল হালদার ও পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর সদস্যরা। ধস কবলিত এলাকা আপাতত ঘিরে রাখা হয়েছে।

মহকুমা শাসক সুকান্ত সাহা জানান আপাতত বেশ কিছু বাসিন্দকে তুলে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বাকিদেরও ব্যবস্থা করা হবে। তাদের জন্য খাবারের পাশাপাশি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র এর ব্যবস্থা করা হয়েছে । জোয়ারের জল নামার পর যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় তা দেখে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় মেরামতের কাজ চালানো হবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *