ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন, যত দ্রুত সম্ভব শিলিগুড়ির সঙ্গে ঢাকার রেল পরিষেবা শুরুর পরিকল্পনা করা হচ্ছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের। রবিবার (২২ নভেম্বর) দার্জিলিঙে সমাজসেবা সংক্রান্ত একটি অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

শ্রিংলা বলেন, দুই শহরের মধ্যে রেল পরিষেবা চালু করার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। সে বিষয়ে শীগগিরই ঘোষণা করা হবে। বলেন, যত দ্রুত সম্ভব রেল পরিষেবা শুরুর পরিকল্পনা করা হচ্ছে।ইতিমধ্যে হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেল পরিষেবা শুরু হয়ে যাওয়ায় আরও সুবিধা মিলবে। বাংলাদেশের সঙ্গে উত্তরবঙ্গকে যুক্ত করতে এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হতে চলেছে। পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে প্রচুর সুবিধা হবে। প্রাথমিকভাবে শিলিগুড়ি এবং ঢাকার মধ্যে শুরু হয়েছে পণ্যবাহী রেল পরিষেবা। এখন প্যাসেঞ্জার ট্রেনের পরিষেবাও শুরু করা হবে।

 

সঙ্গে তিনি যোগ করেন, কলকাতা ও ঢাকা এবং কলকাতা ও খুলনার মধ্যে দুই দেশের প্যাসেঞ্জার ট্রেনের পরিষেবা আছে। ঢাকা এবং শিলিগুড়ির মধ্যে যাত্রীবাহী ট্রেন চালু হলে প্রচুর পর্যটক আসবেন। চিকিৎসা সংক্রান্ত কারণেও অনেকে আসেন। যা এই অঞ্চলের পক্ষে ভালো হবে।

গত ১ আগস্ট থেকে হলদিবাড়ি থেকে চিলাহাটি পর্যন্ত পণ্যবাহী ট্রেনের পরিষেবা শুরু হয়েছে। সেই রেলপথ দিয়ে একটা সময় শিলিগুড়ি এবং জলপাইগুড়ির মধ্যে যোগ তৈরি হয়েছিল। ওই লাইন ধরেই চলাচল করত দার্জিলিং মেল। কিন্তু ১৯৬৫ সালে পাকিস্তানের সঙ্গে যুদ্ধের পর সেই লাইন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। অবশেষে ৫৬ বছরের প্রতীক্ষার পর আবারও রুট চালু করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here