নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: দীপাবলিতে ফের বিষমদের বিপদ বিহারে। গোপালগঞ্জে মদ্যপানের পর অন্তত ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভরতি অন্তত ৭ জন। এই খবরটি নিশ্চিত করেছেন ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট নওল কিশোর চৌধুরী। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা। পরিস্থিতির দিকে নজর রাখা হচ্ছে বলে খবর। উৎসবের মরশুমে এ ধরনের ঘটনায় উদ্বিগ্ন প্রশাসন।

ড্রাই স্টেট হিসেবে পরিচিত বিহার। নীতীশ কুমার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে কুরসিতে বসার পর থেকেই বিহারকে মদমুক্ত করার উদ্যোগ নেন। সেটা ২০১৬ সাল। সেই থেকেই বিহারে মদ নিষিদ্ধ। তবে গাঁ-গঞ্জে প্রশাসনের নজর এড়িয়ে বিক্রি হচ্ছেই। মাঝেমধ্যেই সেখান থেকে বিষমদ খেয়ে মৃত্যুর ঘটনা সামনে আসে। জুলাইয়ে সেই রাজ্যের পশ্চিম চম্পারণে বিষমদ খেয়ে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আশেপাশের গ্রামগুলিতেও মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। তাতে বেশ শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। ঘটনার গুরুত্ব বুঝে তদন্তের নির্দেশ দেয় প্রশাসন।

দীপাবলিতে ফের সেই বিপদ বাড়ল। গোপালগঞ্জের ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট নওয়ল কিশোর চৌধুরী জানিয়েছেন, ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখনও হাসপাতালে ৭ জন ভরতি। আর কতজন এই মদ খেয়ে অসুস্থ রয়েছেন, সেই সংখ্যা অজানা। অনেকেই মনে করছেন, ‘মদমুক্ত’ বিহারে উৎসবের মরশুমে বেআইনি মদের ব্যবসা রমরমিয়ে চলে।