সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ ::বকখালি :: দীর্ঘ প্রায় ৩৫ বছর পর নিজের পরিবারের কাছে ফিরতে চলেছেন ভবানী মন্ডল । স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ভবানী মন্ডল প্রায় ৩৫ বছর আগে পুরোপুরি মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় নামখানাতে এসেছিলেন। নিজের বাড়ি কোথায় , পরিবারে কারা রয়েছে সবকিছুই তিনি একেবারে ভুলে গিয়েছিলেন। নামখানা ব্লকের বিভিন্ন জায়গায় ভবঘুরের মতো ঘুরে বেড়ানোর পর প্রায় বছর ২৫ ধরে তার আস্তানা হয়েছে বকখালি।

বকখালি সমুদ্র সৈকত লাগোয়া এক ব্যবসায়ী বানেশ্বর বাবু ভবানীদেবীকে নিজের বোনের মতন আগলে রেখেছেন। বানেশ্বর বাবু এবং তার পরিবারের সেবা যত্নে ভবনীদেবী এখন আগের থেকে অনেকটাই সুস্থ। তার স্মৃতিপটে এখন নিজের বাড়িঘর এবং পরিবারের ছবিটা ঝাপসা কাটিয়ে সুস্পষ্ট হয়ে উঠেছে। বকখালিতে বেড়াতে আসা এক পর্যটক এর তৎপরতায় তার অসহায়তার কথা পৌঁছায় হাম রেডিও স্টেশনে ।

হাম রেডিও স্টেশনের তৎপরতায় জানা যায় ঝাড়খণ্ডের কুমারদাগার বাসিন্দা ভবানীদেবী । বেশ কয়েক দিনের প্রচেষ্টায় তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে সক্ষম হয়েছে হাম রেডিও। তাদের তৎপরতায় দক্ষিণ ২৪ পরগনা সিভিল ডিফেন্স এর কর্মীরা প্রতিনিয়ত দৃঢ় প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে যাতে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ওই মহিলাকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া যায়।

বানেশ্বর বাবু সহ বকখালির বহু ব্যবসায়ী এবং বকখালির বহু মানুষের সঙ্গে ভবানী দেবীর দীর্ঘদিনের আত্মিক একটা সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। তাই স্বাভাবিক ভাবেই ভবানী দেবীর নিজের পরিবারের কাছে ফিরে যাওয়ার কথা শুনে অনেকটাই আবেগপ্রবণ হয়ে উঠেছে বকখালির মানুষজন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here