দুবরাজপুরের চা বিক্রেতা মরনোত্তর চক্ষুদানে অঙ্গীকারবদ্ধ হলেন – কুর্নিশ এলাকাবাসীর

নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: বীরভুম :: পেশায় চা বিক্রেতা দুবরাজপুরের রঞ্জনবাজারের বিপুল দাস নতুন বছরের শুরুর দিনেই নিজের চক্ষু দুটি মরণোত্তর দান করার অঙ্গীকার করে নজির গড়লেন । বোধহয় একেই বলে চায় পে চর্চা কারন চায়ের দোকানি বিপুল বাবু আর পাঁচজন তাঁর দোকানের কাস্টমারের কাছে গড়লেন নজির ।

তাতেই অনুপ্রাণিত হয়ে প্রতিবেশী ৫১ বছর বয়সী কণিকা ওঝাও মরণোত্তর চক্ষুদানের অঙ্গীকার করলেন এদিন ।হঠাৎ একদিন কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যরা মরণোত্তর চক্ষুদানের বিষয়ে আলোচনা করছিলেন তার চায়ের দোকানে    বসেই । সেই সময় বিপুল বাবু তাদের কথা শুনে উদ্বুদ্ধ হন । আজ বিপুল দাস এবং  কনিকা দেবী মরণোত্তর চক্ষুদানের অঙ্গীকার করলেন । বিপুল বাবু চান তাকে দেখে সমাজের আরও পাঁচটা মানুষ মরণোত্তর দেহদান বা অঙ্গদানে এগিয়ে আসুন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *