নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: গোটা রাজ্যে দুয়ারে রেশন প্রকল্প সূচনার সঙ্গে সঙ্গে ৪২,০০০ কর্মসংস্থানের সুযোগ দিয়েছেন তিনি। দুয়ারে রেশন প্রকল্পের জন্য ২১ হাজার রেশন ডিলারের ৪২ হাজার কর্মীর প্রয়োজন হবে। তাদের সরকার অর্ধের বেতন দেবেন। অর্থাৎ তাঁদের ১০ হাজার টাকা বেতন দেওয়া হবে। সেই বেতনের অর্ধেক দেবে রাজ্য সরকার। অর্থাৎ ৫ হাজার টাকা দেবে রাজ্য সরকার। আর বাকি ৫ হাজার টাকা দেবেন রেশন ডিলাররা।

দুয়ারে রেশন প্রকল্পে শুধু কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়নি। রেশন ডিলারদের বিশেষ গাড়িও দিয়েছে রাজ্য সরকার। সেই বিশেষ গাড়িতে করেই দুয়ারে দুয়ারে রেশন পৌঁছে যাবে। যাঁরা সরকারের দেওয়া গাড়ি নেবেন না তাঁদের গাড়ি কেনার জন্য আলাদা করে ১ লক্ষ টাকা দেবে রাজ্য সরকার।

একই সঙ্গে কুইন্টাল প্রতি কমিশন বাড়ানো হয়েছে রেশন ডিলারদের। ৭৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৫০ টাকা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মমতা। রাজ্যের ১০ কোটি মানুষের বাড়িতে পৌঁছে যাবে রেশন। গোটা দেশে কোথাও এমন প্রকল্প উদ্বোধন হয়নি বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বাংলার এই প্রকল্প একটা সময়ে গোটা বিশ্বে মডেল তৈরি করবে বলে দাবি করেছেন তিনি।

অনেকেই রেশনের ডিলারশিপ নিতে চান বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মহিলাদেরও এগিয়ে আসার সুযোগ দিতে বলেছেন তিনি। সেই জন্য মহিলাদের ক্ষেত্রে ডিলাপশিপ নেওয়ার জন্য ১ লক্ষ টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত করে দিতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। রেশন ডিলারদের সুবিধার্থে বিলিং প্রক্রিয়া অনলাইনে করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। রেশন বিলিকে কোনও রকম বাধা তিনি বরদাস্ত করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।