নয় বছরের শিশু পুত্রের দুষ্টুমী সহ্য করতে না পেরে নিজের হাতেই ছেলেকে খুন করলো এক জন্মদাত্রী মা।

নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: আগরতলা :: মঙ্গলবার ১১,জুন :: এই মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী হলো সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর পশ্চিম জয়নগর এলাকার মহাবীর ক্লাব সংলগ্ন এলাকাবাসী। ছেলের যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে গেছে বলে জানান মৃত রাজদীপ গোয়ালার মা সুপ্রভা গোয়ালা। তিনি অচৈতন্য অবস্থায় জানায়, তার ছেলে পড়াশোনা করতে চায় না। ঘরে চুরি করে।

ঘর থেকে বাইরে বের হয়ে মানুষকে জ্বালা যন্ত্রণা দেয় । যার কারণে তাকে বিভিন্ন জায়গা থেকে কাজ ছেড়ে আসতে হয়েছে। কাজেও রাখতে চায় না কেউ। তারপরও বর্তমানে দিনমজুরি করে সংসার পরিচালনা করতেন। মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। স্বামীর খোঁজ নেই। শশুর বাড়ি কৈলাশহরে। আগরতলায় থেকে ছেলের ভরণ পোষণ মেটাতে যোগালী কাজ করতেন তিনি।

কিন্তু তারপরও ছেলেকে শান্ত করে তুলতে ব্যর্থ হয়েছেন। দিনের পর দিন তার অসহ্য দুষ্টুমী ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে দিয়েছে সোমবার। দড়ি দিয়ে ছেলের গলায় আঘাত করে চিরতরে শেষ করে দিয়েছে সুপ্রভা গোয়ালা। তারপর চিৎকার শুরু করে। ছুটে আসে বাড়ির মালিক সাবিত্রী চৌধুরী। সাবিত্রী চৌধুরী জানান, মাত্র ১৪ দিন আগে ভাড়া এসেছিল বাড়িতে। এরই মধ্যে এই ঘটনা করেছে এই মহিলা।

খবর পেয়ে আশেপাশে লোকজন এসে জমায়েত হয় বাড়িতে। খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ এসে মহিলাকে আটক করে মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। এ ধরনের ঘটনা সচরাচরে দেখা না গেলেও সোমবার সাক্ষী রইল এলাকাবাসী। মায়ের হাতে ছেলের হত্যার ঘটনায় বাকরুদ্ধ গোটা এলাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − eight =