নারী পাচার ও ধর্ষণে অভিযোগে ফেরার মূল অভিযুক্ত ও তার সঙ্গীকে ভিন রাজ্য থেকে গ্রেফতার করল সুন্দরবন পুলিশ জেলার পুলিশ

সুদেষ্ণা মন্ডল:: সংবাদ প্রবাহ :: সুন্দরবন :: সুন্দরবন পুলিশ জেলার পুলিশের বড়সড় সাফল্য ।নারী পাচার ও ধর্ষণে অভিযোগে ফেরার মূল অভিযুক্ত ও তার সঙ্গীকে ভিন রাজ্য থেকে গ্রেফতার করল পুলিশ। পুলিশ সূত্রের খবর, ধৃতদের নাম নুরআলম খান (৪১), সামসুদ্দিন শেখ (৪৭) ওরফে ধোপা। বাড়ি বীরভূমের লাভপুর থানার ভালাস এলাকায়।

রবিবার রাতে দিল্লির মালভিয়া নগর থানার চিরাগ থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সোমবার তাদের দিল্লির সাকেত কোর্টে তোলা হয়। ট্রানজিট রিমান্ডে বুধবার তাদের ঢোলাহাট থানায় নিয়ে আসা হয়। স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়ে বৃহস্পতিবার তাদের কাকদ্বীপ মহাকুমা আদালতে তোলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মাসে পাচার হওয়া এক গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ঢোলা হাটের শংকরপুর মোল্লাপাড়ার বাসিন্দা দম্পতি বাবুল হোসেন মোল্লা ওরফে বাবলু ও জিন্নাতুন গ্রেপ্তার করে। তাদের পুলিশি হেফাজতে নিয়ে দিল্লির সারিতা বিহার থানার মদনপুর খাদার এলাকায় এক গোপন ডেরা থেকে পাচার হওয়া আরো ৫ জন মেয়েকে উদ্ধার করে পুলিশ।

তাদের মধ্যে দুজন নাবালিকাকে শ্লীলতাহানি ও ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। সুন্দরবন জেলা পুলিশের হাতে ধরা পড়ে মূল অভিযুক্ত নুর আলমের শাকরেদ কলকাতার ওস্তাগার লেনের বাসিন্দা সঞ্জু হালদার। তারপর থেকে ফেরার ছিল এই নুরআলম। আজ ধৃতদের কাকদ্বীপ মহাকুমার আদালতে তোলা হলে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে বিচারক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × one =