সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ :: ফ্রেজারগঞ্জ :: সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সমুদ্রসৈকতে স্নান করতে গিয়ে চরম শাস্তির মুখে পড়লো একদল পর্যটক। বকখালি সমুদ্র সৈকতে পর্যটকদের কান ধরে উঠবস করালো ফ্রেজারগঞ্জ উপকূল থানার কর্তব্যরত এক সিভিক ভলেন্টিয়ার।

ঘূর্ণিঝড় “জাওয়াদ” ও অমাবস্যার ভরা কোটালের জেরে সমুদ্র উত্তাল। সমুদ্র উত্তাল থাকায় বকখালি ঘুরতে আসা পর্যটকদের সমুদ্রে নামার উপর দুদিন আগেই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

ফ্রেজারগঞ্জ উপকূল থানা ও ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে সমুদ্র সৈকতে মাইকিং এর মাধ্যমে বকখালি ঘুরতে আসা পর্যটকদের সতর্ক করা হচ্ছিল । সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পুলিশ কর্মীদের নজর এড়িয়ে বকখালি সমুদ্র সৈকতে স্নান করতে নামার চেষ্টা করে একদল পর্যটক ।

কিন্তু শেষ রক্ষা হলনা তাদের। নজরে পড়ে যায় কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীদের । ওই পর্যটক এর দলকে জিজ্ঞাসা করলে তারা সমুদ্রে স্নান করবেই বলে রীতিমতো তর্কাতর্কি শুরু করে ।

কর্তব্যরত এক সিভিক ভলেন্টিয়ার নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে তাদেরকে বোঝানোর চেষ্টা করে । তার পরেও নাছোড়বান্দা ছিল পর্যটক দল। এরপর কর্তব্যরত ওই সিভিক ভলেন্টিয়ার পর্যটকের দলের বেশ কয়েকজনকে কান ধরিয়ে উঠবস করায়। বকখালি সমুদ্র সৈকতে সিভিক ভলেন্টিয়ারকে পর্যটক দলকে এহেন শাস্তি দেওয়ার ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয়ে যায়।

সিভিক ভলেন্টিয়ার পর্যটকদের কান ধরে উঠবস করানোর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু হয়েছে নানা মহলে । এপিডিআর দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা কমিটির পক্ষ থেকে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন ও রাজ্য পুলিশের ডিজির কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here