সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ :: বারুইপুর :: পারিবারিক বিবাদের জেরে ঘুমন্ত স্ত্রীকে গুলি করে খুনের চেষ্টা । আর এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য গোটা এলাকায় । আহতের নাম আয়েশা বিবি । ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে জয়নগর থানার অন্তর্গত ঢোষা-চন্দনেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের তিলপী গ্রামে ।

স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও দ্বিতীয়বার একরকম জোর খাটিয়ে আয়েশাকে বিয়ে করে সাবিরুল শেখ । কিছুদিন যাওয়ার পর প্রথম পক্ষের কথা জানতে পারায় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা শুরু হয় , চলে তীব্র পারিবারিক অশান্তি । এরপরই চরম পদক্ষেপ নেয় স্বামী । ঘুমন্ত স্ত্রীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় সাবিরুল । গুরুতর জখম অবস্থায় ওই গৃহবধূ বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর পেটে গুলি লেগেছে।

স্থানীয়রা জানায় , বছর পাঁচেক আগে সাবিরুল শেখ ভয় দেখিয়ে জোর করে আয়েষাকে বিয়ে করে l স্বামীর প্রথম স্ত্রীর কথা জানতে পারেন ওই গৃহবধূ । এরপর প্রতিদিনই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ চলতো বলে প্রতিবেশীদের দাবি। এমনকি বেশকিছু দিন আগে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে চরম গণ্ডগেল হলে সাবিরুল শ্বশুরের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যায়। পরে গ্রামে সালিশি সভা হয় এবং ওই দম্পতি আবারও সংসার করতে থাকে।

সোমবার একটি জনসভা ছিল এলাকায়। রাতে আয়েষার শরীর খারাপ থাকায় ঘরের মধ্যে বিছানায় ঘুমিয়েছিল । সুযোগ বুঝে সাবিরুল ঘরের মধ্যে ঢুকে স্ত্রীকে লক্ষ করে গুলি চালিয়ে দিয়ে এলাকা থেকে পালিয়ে যায় । অন্যদিকে যন্ত্রণায় চিৎকার শুরু করে দেয় ওই গৃহবধু । পরিবারের অন্যান্যরা জনসভা থেকে ফিরে এসে দেখে ঘরের মধ্যে রক্তাক্ত অবস্থা ওই গৃহবধু পড়ে রয়েছে ।

তারা গ্রামবাসীদের সাহায্যে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পদ্মেরহাট হাসপাতালে নিয়ে যায় । পরে সেখান থেকে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় জয়নগর থানার পুলিশ । অভিযুক্তের খোঁজে এলাকায় তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।