পুর নির্বাচন শুরুর আগে ত্রিপুরায় আক্রান্ত প্রার্থী-পোলিং এজেন্ট

নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: ত্রিপুরায় পুরভোটের আগের রাতে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে গাড়িতে করে দুর্বত্তদের আগরতলায় নিয়ে আসার অভিযোগ করেছে স্থানীয় কংগ্রেস নেতৃত্ব। পাশাপাশি ৫ নম্বর ওয়ার্ড-সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের তৃণমূল এবং সিপিএম প্রার্থীদের বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। বিলোনিয়ায় সিপিএম প্রার্থীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ করা হয়েছে। আমবাসায় তৃণমূল প্রার্থীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত শাসকদল। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।

আগরতলায় ভোট শুরু হয়েছে সকাল সাতটা থেকে। ভোট শুরুর প্রস্তুতিতে ইভিএম পরীক্ষার কাজ চলছিল ৫ নম্বর ওয়ার্ডে। সেই সময় একাধিক জায়গায় তৃণমূল এজেন্টদের ভয় দেখিয়ে বুথ থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ। বাইকের চাবি দিয়ে এজেন্টদের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে। পাশাপাশি আগরতলা শহরে এই প্রার্থীর দোকানেও রাতে ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ।

ভোটের আগের দিন মধ্যরাত থেকে ত্রিপুরায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার অভিযোগ উঠেছে। যা নিয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। মানুষের কাছে যাতে অত্যাচারের ঘটনার খবর না পৌঁছয় সেই কারণেই এই কাজ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ত্রিপুরা তৃণমূলের আহ্বায়ক সুবল ভৌমিক।

পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, তৃণমূল একমাত্র আগরতলায় ৫১ টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে। আর বাকি জায়গায় একটা দুটো করে প্রার্থী দিয়েছে। প্রার্থী না পাওয়ায় হামলার নাটক করা হচ্ছে বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি। পাশাপাশি তাঁর অভিযোগ পশ্চিমবঙ্গ থেকে ত্রিপুরায় হিংসার আমদানি করা হচ্ছে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 2 =