পুলিশের কাজে বিশেষ দক্ষতার জন্য এবার গোটা দেশে পিএম(‌পুলিশ মেডেল)‌ সম্মানে মনোনীত হয়েছেন মালদার ২ পুলিশ আধিকারিক।

কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: পুলিশের কাজে বিশেষ দক্ষতার জন্য এবার প্রেসিডেন্ট’‌স পুলিশ মেডেল পাচ্ছেন মালদার মোথাবাড়ি থানার এসআই ওমর ফারুক।এই খবর এসে পৌঁছতেই খুশির আবহ জেলা পুলিশ থেকে জেলাবাসীর মধ্যে। এই খবরে খুশি জেলা পুলিশ প্রশাসন থেকে সাধারণ মানুষ।

গোটা রাজ্যে পিএম সম্মান পাচ্ছেন মোট ১৬ জন। তার মধ্যে মালদা জেলারই ২ পুলিশ আধিকারিক। তাঁরা হলেন ওমর ফারুক এবং নীহাররঞ্জন ভৌমিক। ওমর ফারুক এসআই হিসেবে কর্মরত মোথাবাড়ি থানায় ।

প্রজাতন্ত্র দিবসের আগের দিন এই খবর এসে পৌঁচায় মালদা জেলায়। সাধারণ প্রজাতন্ত্র দিবসে এই মেডেল দিয়ে সম্মানিত করা হয়ে থাকে। এবার করোনা পরিস্থিতির জন্য পরে অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দেওয়া হবে। এই খবর রাজ্যের মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিনের কাছে পৌঁছাতে তিনি এস আই ওমর ফারুককে আহ্বান জানান সম্বর্ধনা দেওয়ার জন্য, এবং ২৬ শে জানুয়ারির দিন বিকেলে কালিয়াচক ২ নম্বর ব্লক বিডিও অফিসে এসআই ওমর ফারুককে ফুলের তোড়া ও উত্তরীয় পরিয়ে সম্বর্ধনা দেন রাজ্যের মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন সহ কালিয়াচক ২ নম্বর ব্লকের বিডিও রমাল সিং বীরদী ও মোথাবাড়ি থানার ওসি মৃনাল চ্যাটার্জি।

সাধারণ সর্বভারতীয় স্তরে পুলিশের বিশেষ অবদানের জন্য পি এমজি(‌পুলিশ মেডেল ফর জেনারেল)‌, পিপিএম(‌প্রেসিডেন্ট’‌স পুলিশ মেডেল ফর ডিসটিঙগুইসড সার্ভিস)‌ এবং পিএম(‌পুলিশ মেডেল ফর মেরিটোরিয়াস সার্ভিস)‌ দেওয়া হয়ে থাকে। সাধারণ দু:‌সাহসিকতা, সততা, বিভিন্ন ক্ষেত্রে অভিযান চালিয়ে অপরাধীদের গ্রেপ্তার, দৃষ্টান্তমূলক কাজ-‌সহ বিভিন্ন কাজের জন্য এই সম্মান দেওয়া হয়ে থাকে।

পুলিশ মেডেলে মনোনিত হওয়া ওমর ফারুক ১৯৯১ সালে দক্ষিণ দিনাজপুরে পুলিশে যোগদান করেন। ২০১১ সালে এএসআই হয়ে মালদায় আসেন। ২০২০ সালে এসআই হয়ে মোথাবাড়ি থানাতে যোগদান করেন। এর আগে তিনি জেলা পুলিশ প্রশাসনের তরফ থেকে বিশেষ অবদানের জন্য ৯৬টি পদক পেয়েছেন। মালদা জেলার মানিকচক ব্লকের চৌকি মির্জাতপুরের বিষনপুর গ্রামে বাড়ি তাঁর। পিএম-‌এ মনোনীত হওয়ায় খুশি তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 19 =