নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ :: উত্তর 24 পরগনা : : প্রয়াত রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত বাবু এক প্রকার বাংলার রাজনীতির আইকন ছিলেন বললেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “তাঁর হয়তো ৭৫ বছর বয়স হয়েছিল, তবু মনে হচ্ছে খুব তাড়াতাড়ি চলে গেলেন। ৫০/৬০ বছর ধরে রাজনীতি জীবনে অ্যাক্টিভ থেকেছেন । সামাজিক জীবনে সবার সঙ্গে তার স্বাভাবিক সম্পর্ক পার্টি বা বয়স কোন কিছু উনি ভাবতেন না। ব্যক্তিগত ভাবে অনেকের অভিভাবক ছিলেন।

রাজনীতির ক্ষেত্রে তাদের মত মানুষরা চলে যাওয়াটা মূল্যবোধ ও পরম্পরার যে রাজনীতি সেটায় একটা বড় গ্যাপ তৈরি হয়ে গেছে।বেশ কিছু নেতাকে আমরা ইদানিং হারিয়েছি। পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে বড়ো একটা গ্যাপ তৈরি হচ্ছে। উনি যে পার্টির নেতা ছিলেন সে পার্টির যেমন ক্ষতি,নিঃসন্দেহে বাংলার রাজনীতির বড়ো ক্ষতি হল”।

বিধানসভায় যাওয়ার পর ওনার সামনা সামনি হয়েছি ২০১৬ সাল থেকে। তিন বছর ছিলাম ।অনেকবার দেখা হয়েছে বিএ কমিটিতে বসে এক সাথে খাওয়া দাওয়া হত। এত বছর বয়সেও উনি মিষ্টি খেতেন খুব। বিধানসভার মধ্যে বেঞ্চে বসে অনেক্ষণ আলোচনা হতো। উনি যে ধরণের মজার মজার কথা বলতেন স্টেট ফরোয়ার্ড বলতেন, এটা যেমন আনন্দদায়ক ছিল, মজার ও ছিল। সেরকম শিক্ষার ও ব্যাপার ছিল।নিঃসন্দেহে বলা যায় এরকম ব্যক্তিত্ব চলে যাওয়ায় বাংলার রাজনীতিতে বড়ো একটা গ্যাপ তৈরি হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here