নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কেরালা :: বিবাহিত, দুই সন্তানের মা, তাতে কী, প্রেম কি আর কোনো বাধা মানে? তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ হওয়ায় যুবককে প্রেম নিবেদন করে বসেছিল ৩৫ বছরের শিবা। আর সেই প্রেম প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সোজা অ্যাসিড মারল ‘প্রেমিক’ যুবকের মুখে। মারাত্মক জখম নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি সেই যুবক। চিকিৎসকদের আশঙ্কা, দৃষ্টিশক্তি হারাতে পারেন ওই যুবক।

 

অরুণের পরিবারের অভিযোগ, সম্পর্ক শেষের কথা বলতেই তেড়ে আসেন শিবা। শুরু হয় অশান্তি। এমনকী, অরুণকে ব্ল্যাকমেল করে টাকা চাইতে থাকেন শিবা। গত ১৬ নভেম্বর বাসার নিকটবর্তী একটি চার্চে আসেন অরুণ। সেখানে শিবাও আসেন। কথা ছিল, চাহিদামতো টাকা দিয়ে সম্পর্কে ইতি টানবেন অরুণ। কিন্তু দেখা হওয়ার পরই অরুণের মুখে অ্যাসিড ছোড়েন শিবা। অ্যাসিডে জখম হয় খোদ শিবাও। কিন্তু গুরুতর জখম হন অরুণ।

প্রথমে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। পরে সরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। চিকিৎসকরা জানান, অ্যাসিডে অরুণের গোটা মুখ ঝলসে গেছে। ক্ষতি হয়েছে চোখেরও। চিরকালের মতো দৃষ্টিশক্তি হারাতে পারেন তিনি।