কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: বছরের শুরুতেই মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের শাসকদলের গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে চলে এলো। ১ জানুয়ারি তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালন নিয়ে হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে বিরোধ তুঙ্গে উঠলো।

হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লক সভাপতি মানিক দাস এবং হরিশ্চন্দ্রপুরের বিধায়ক তজমুল হোসেন পৃথক ভাবে একই ব্লক এলাকায় দুটি প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। দুটি অনুষ্ঠানেই কর্মী-সমর্থকদের ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।

আর এই নিয়ে শুরু হয়েছে দলের মধ্যে প্রবল বাকবিতণ্ডা। বিগত দিনেও হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকায় শাসকদলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালন নিয়ে প্রবল গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব দেখা গিয়েছিল। এবারও তার ব্যতিক্রম হল না। বিগত দিনের জেলা পরিষদ কর্মাধ্যক্ষ মর্জিনা খাতুনের নেতৃত্বে পৃথক ভাবে দলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করা হতো | অন্যদিকে তজমুল হোসেন গোষ্ঠী বরাবরের মত আরেকটি প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানের আয়োজন করত।

কিন্তু এ বছর কর্মাধ্যক্ষ মর্জিনা খাতুন ও তার অনুগামীরা তজমুল হোসেনের সঙ্গে এক সাথে দলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করলেও হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লক সভাপতি মানিক দাস তার অনুগামীদের নিয়ে পৃথক ভাবে দলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করলেন।

আর এই নিয়ে শাসক দলের অভ্যন্তরে শুরু হয়েছে দ্বন্দ্ব। সামনে পঞ্চায়েত ভোট আর তার আগেই শাসকদলের গোষ্ঠী কোন্দল রাস্তায় এসে পড়ায় চরম অস্বস্তিতে পড়েছে শাসক দল। তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ঘিরে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি হরিশ্চন্দ্রপুর বিজেপি নেতৃত্ব। রাজ্য জুড়ে তৃণমূলের শেষের শুরু হয়ে গিয়েছে। আগামী নির্বাচনে এরা ধুলিস্যাৎ হয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here