সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ :: ডায়মন্ড হারবার :: রাজ্যের শীতের আমেজ। শীতের আমেজকে গায়ে লাগিয়ে আট থেকে আশি মজেছে বড়দিনের ছুটিতে। গত দু’বছর করোনা সংক্রমনের কারণে বন্ধ ছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনার একাধিক পর্যটক কেন্দ্র গুলি। গত দু’বছর তেমনভাবে উৎসবের মেজাজে আনন্দ উপভোগ করতে পারেনি রাজ্যবাসী। কিন্তু রাজ্যের কিছুটা হলেও করোনা সংক্রমনের উপর লাগাম টানা গিয়েছে।

আজ সকাল থেকেই বিভিন্ন পর্যটক কেন্দ্র গুলোতে সাধারণ মানুষের ঢল চোখে পড়ার মতন। ডায়মন্ড হারবার, বকখালি, মৌসুনি দ্বীপ, হেনরি আইল্যান্ড, ঝড়খালি ও কুলতলী বিভিন্ন পর্যটক কেন্দ্র গুলোতে সাধারণ মানুষ ও পর্যটকদের সকাল থেকেই বড়দিনে আনন্দে মজতে দেখা গিয়েছে। করণা স্বাস্থ্য বিধি মেনেই জেলার বিভিন্ন গির্জায় সাড়ম্বরে পালিত হচ্ছে যিশুখ্রিস্টের জন্মদিন সকাল থেকেই বিভিন্ন গির্জার সামনে ভক্তদের ঢল।ডায়মন্ডহারবার কেল্লা আর মাঠে সকাল থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের পর্যটকেরা এসে ভিড় জমিয়েছে। শুরু হয়েছে চড়ুইভাতির আমেজ। অন্যদিকে সুন্দরবন ভ্রমণ পিপাসু বাঙালিরা ভিড় জমিয়েছে সুন্দরবনের ঝড়খালির “ওয়ার্ল্ড এনিমেল পার্কে”।

অন্যদিকে কুলতলী থেকে সুন্দরবনের বিভিন্ন জায়গায় উদ্দেশ্যে বহু পর্যটক পাড়ি দিয়েছে। উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গিয়েছে বাঙালির অন্যতম পর্যটক কেন্দ্র বকখালি তে। বকখালি সমুদ্র সৈকত সমুদ্র স্নানে মজেছে পর্যটকরা। অন্যদিকে ভারতবর্ষের শেষ প্রান্ত মৌসুনি দ্বীপ বঙ্গোপসাগরের সুন্দর্য উপভোগ করতে বহু পর্যটকেরা উপস্থিত হয়েছে। বড়দিনের ছুটির আমেজ চড়ুইভাতির মজা নিতে বিভিন্ন পর্যটক কেন্দ্র গুলিতে ভিড় জমিয়েছে আম বাঙালি।