উদয় ঘোষ :: সংবাদ প্রবাহ :: বর্ধমান :: সাত সকালেই গোটা গ্রাম জুড়ে বাঘের আতঙ্ক। ভাতাড় থানা অন্তর্গত এড়াচিয়া গ্রামের আদিবাসী পাড়ার ঘটনা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আদিবাসী পাড়ার কয়েকজন বুধবার সকালে শৌচকর্ম করতে গিয়ে খাঁচার মধ্যে বাঘের মতো একটি জন্তু দেখতে পায়। এই খবর চাউর হতেই ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

প্রচুর মানুষ ভিড় জমায় এই বাঘের মতো জন্তুটিকে দেখার জন্য। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বন দপ্তরের বর্ধমান বিভাগের কর্মীরা। তাঁরা এসে জন্তুটিকে দেখার পর জানান, বাঘের মতো দেখতে হলেও এই প্রাণীটি আসলে বাঘরোল।

বন দপ্তরের কর্মীরা এলাকার মানুষের কাছে জানতে চান খাঁচার ভেতর বাঘরোলটিকে আটক করলো কারা। যদিও এলাকার কেউই মুখ খোলেননি। বন দপ্তরের কর্মীরা বাঘরোলটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যাবার আগে বলেন, এই ধরণের খাঁচা বানানো ও বন্যপ্রাণী শিকার করা দন্ডনীয় অপরাধ। এই ঘটনাটি কে বা কারা করেছে তদন্ত করে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তবে সূত্রের খবর, এড়াচিয়া গ্রামে কয়েকটি পোল্ট্রি ফার্ম আছে। রাতের অন্ধকারে অজানা জন্তু ফার্মে হানা দিয়ে মুরগি ধরে খেয়ে নেয়। ক্ষতির মুখে পড়তে হয় ফার্ম মালিকদের। তাই লোকসানের হাত থেকে বাঁচতে জন্তুটিকে ধরতেই খাঁচা বসিয়েছিল। এছাড়া অন্য কোনও উদ্দেশ্য ছিল না। তবে ঘটনা যাইহোক বন দপ্তরের কর্মীরা জানান, চোরা শিকারি নাকি অন্য কিছু আসল সত্য জানতে পুলিশের সহযোগিতায় তদন্ত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here