বর্ধমানের টাউন হলে সাংগঠনিক সভার আয়োজন করে তৃণমূল কংগ্রেস প্রভাবিত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন।

উদয় ঘোষ :: সংবাদ প্রবাহ :: বর্ধমান :: শনিবার বর্ধমানের টাউন হলে জেলার সমস্ত দপ্তরের সরকারি কর্মচারীদের নিয়ে সাংগঠনিক সভার আয়োজন করে তৃণমূল কংগ্রেস প্রভাবিত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন। সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টপাধ্যায়, জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া সহ অন্যান্যরা।

উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের চেয়ারম্যান পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সেই সভা থেকেই বর্ধমান জেলার প্রতিটা ব্লক স্তরে সংগঠনের ভিতকে আরও দৃঢ় করার কথা বলেন স্বপন বাবু।

অধিকারিক ও সংগঠন সদস্যদের মধ্যে মতানৈক্য থাকায় জটিলতা তৈরি হচ্ছে বলে অভিযোগ। দলীর নেতৃত্বের হস্তক্ষেপে সেই জটিলতা অবসানের আবেদন জানানো হয় সংগঠনের তরফ থেকে। সেই সঙ্গে দলীয় নেতৃত্বের কাছে মহার্ঘভাতা ও আর্থিক সুবিধার বিষয়গুলিতে বিবেচনা করে দেখার দাবি জানায় তারা। সেইসব সমস্যাগুলো আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করার আশ্বাস দেন মন্ত্রী।
কর্মচারীদের রাজ্য সরকারের জনকল্যাণ মুলক প্রকল্প, যেমন লক্ষ্মীর ভাণ্ডার, স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড, দুয়ারে রেশন, কৃষক বন্ধু, মানুষের কাছে আরও বেশি করে তুলে ধারার কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, করোনা মহামারির মতো প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সরকার কর্মচারীরা আমেদের অনেক সাহায্য করেছে। তার জন্য আমরা তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। তবে সংগঠনকে আরও দৃঢ় করতে হবে। যাতে বাইরের কেউ এসে আমাদের টলাতে না পারে। কিছু সমস্যা যেগুলো রয়েছে সেগুলো আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা হবে।

তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টপাধ্যায় বলেন, পারিপার্শ্বিক কোনো ছোটো ছোটো সংগঠন নয়। একটাই সংগঠন হতে হবে। একই উদ্দেশ্য একই ছাতার তলায় কাজ করতে হবে। বাম জামানায় সরকারি কর্মচারীদের উপর বাড়তি চাপ থাকত। তবে কর্মচারীদের নিজেরা দায়িত্ব নিয়ে সরকারি প্রকল্পগুলোকে মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে। কর্মচারীদের যে দাবি দাওয়া গুলো রয়েছে সেগুলো আমার আবশ্যই আলোচনার মাধ্যমে সম্পূর্ণ করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *