বর্ধমান জেলায় আমন আলু অ সবজি চাষে ব্যাপক ক্ষতির আশংকা – চাষিরা এখন ক্ষতিপূরণের আশায় বুক বাঁধছেন

উদয় ঘোষ :: সংবাদ প্রবাহ :: বর্ধমান :: গত দুদিন ধরে ব্যাপক বৃষ্টি চলে গোটা পূর্ব বর্ধমান জেলা জুড়ে। জামালপুর ব্লকে গত দুদিনে প্রায় ১২০ মিলি মিটার বৃষ্টি হয়েছে। সেই কারণে বিস্তৃর্ণ এলাকার মাঠের ফসল জলের তলায় চলে যায়। ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা আলু চাষে, অবশিষ্ট ধান যেগুলো এখনো তোলা হয়নি ও সরিষা এবং সবজি সব ফসলের জমিই জলের তলায়।

সেই সমস্ত জমি পরিদর্শনে আসেন পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি তথা রায়নার বিধায়ক শম্পা ধাড়া, জেলা কৃষি অধিকর্তা জগন্নাথ চ্যাটার্জী, সাবডিভিশন কৃষি অধিকর্তা সমীর কারফা, সহ অন্যান্যরা।আজ তাঁরা জামালপুরে বিভিন্ন এলাকার মাঠে মাঠে গিয়ে ঘুরে ধান জমি, আলু জমি ও অন্যান্য ফসলের জমি ঘুরে দেখেন।

ব্লক কৃষি আধিকারিক সঞ্জিবুল ইসলাম বলেন, জামালপুর ব্লকে প্রায় ১৪ হাজার হেক্টর মত জমিতে আলু চাষ হয়। তার মধ্যে প্রায় ৮-৯ হাজার হেক্টর জমিতে আলু বসানো হয়েছে। যার প্রায় সবটাই জলের তলায় চলে গেছে। এখনো পর্যন্ত ব্লকের জৌগ্রাম, আবুঝাটি সহ অন্যান্য জায়গা মিলে ২০০০ হেক্টর জমির ধান কাটা অবস্থায় জমিতেই পড়ে আছে, সেগুলোও ক্ষতি হবার আশঙ্কা আছে।

ক্ষয়ক্ষতি এখনো সঠিক ভাবে জানা যায়নি। এছাড়াও তিনি চাষীদের উদ্দেশ্যে বলেন ৩১ শে ডিসেম্বর পর্যন্ত শস্য বীমা করা যাবে সকলে যেন সেটা করে নেন। তিনি ইতিমধ্যেই প্রাথমিক ক্ষয় ক্ষতির রিপোর্ট পাঠিয়ে দিয়েছেন। চাষিরা এখন ক্ষতিপূরণের আশায় বুক বাঁধছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *