বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে বন্দি মৃত্যু নিয়ে চাঞ্চল্য

উদয় ঘোষ :: সংবাদ প্রবাহ :: বর্ধমান : বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিস সেলে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত এক বন্দির মৃত্যু হয়েছে। মৃতের নাম জয়প্রকাশ সিং (৫০)। পশ্চিম বর্ধমানের অণ্ডাল থানার দামোদর কলোনিতে তাঁর বাড়ি। রবিবার দুপুরে তিনি মারা যান। তাঁর মৃত্যুর বিষয়ে একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে বর্ধমান থানা। বন্দি মৃত্যু নিয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে।

চতুর্থ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন বর্ধমানের সিজেএম। মৃতদেহের ময়না তদন্ত করানো হয়েছে। বন্দি মৃত্যুর বিষয়ে জাতীয় ও রাজ্য মানবাধিকার কমিশনে রিপোর্ট পাঠিয়েছে সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ। কারা দপ্তরের উপর মহলে এবং পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক ও পুলিস সুপারকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

সংশোধনাগার সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১২ সালের একটি খুনের মামলায় দুর্গাপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক ২০১৫ সালের ২৪ আগস্ট জয়প্রকাশকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নিের্দশ দেন। সাজা ঘোষণার পর তিনি আলিপুর সংশোধনাগারে ছিলেন। সেখান থেকে ২০১৮ সালের ২৫ মার্চ তাঁকে বর্ধমান সংশোধনাগারে স্থানান্তরিত করা হয়। গত ১২ অক্টোবর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুলিস সেলে রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। পালমোনারি টিউবার কিউলেসিসে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়ে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine − one =