উদয় ঘোষ :: সংবাদ প্রবাহ :: বর্ধমান :: বর্ধমান শহরের বোরহাট তেওয়ারি গলি এলাকায় এক মহিলার অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকালে ঘরে সিলিং ফ্যানের হুকে কাপড় দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তাঁকে ঝুলতে দেখেন পরিবারের লোকজন। মাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে ছাদ থেকে ঝাঁপ দেয় ছেলে। গুরুতর জখম অবস্থায় স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁকে উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভির্ত করেন।

খবর পেয়ে পুলিস মহিলাকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে। চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃতার নাম রীনা তেওয়ারি(৪৮)। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকার এক যুবতীর সঙ্গে মহিলার ছেলের ভাব–ভালোবাসার সম্পর্ক রয়েছে। তা মেনে নিতে পারেননি মহিলা। এনিয়ে ছেলের সঙ্গে তাঁর অশান্তি হয়। বৃহস্পতিবার রাতেও ছেলের সঙ্গে তাঁর কথা কাটাকাটি হয়। অশান্তির কারণেই তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন বলে পরিবারের দাবি। ছেলের সঙ্গে অশান্তির কারণে তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন বলে পুলিসেরও অনুমান।

অন্য একটি ঘটনায় মেমারি থানার গন্তারে এক যুবতীর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘরে সিলিং ফ্যানের হুকে কাপড় দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তাঁকে ঝুলতে দেখেন পরিবারের লোকজন। তড়িঘড়ি কাপড় কেটে নামিয়ে তাঁকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তাররা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে ।