বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলার বিচার দাবিতে কলকাতায় সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সংবাদ প্রবাহ :: কলকাতা ::  বাংলাদেশের বিভিন্ন পূজামণ্ডপে হামলা, ভাঙচুর, হিন্দুদের বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সমাবেশ করেছে কলকাতার ছয়টি বামপন্থী ছাত্র–যুব সংগঠন। পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী কলকাতার মৌলালী মোড় থেকে প্রতিবাদ মিছিল নিয়ে ধর্মতলায় যাওয়ার কথা থাকলেও পুলিশি বাধার মুখে যেতে পারেননি তাঁরা। তাই ছাত্র-যুবারা মৌলালী মোড়েই প্রতিবাদ সমাবেশ করে এসব ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তির দাবি জানান। 

বৃহস্পতিবার আয়োজিত এই প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন বামপন্থী ছাত্র ও যুব নেতা মীণাক্ষী মুখার্জি, শুভব্রত দাসসহ ছয় বামপন্থী ছাত্র ও যুব সংগঠনের নেতারা। এ সময় তাঁরা বলেন, বাংলাদেশে এ বছর দুর্গাপূজা ঘিরে যেভাবে সাম্প্রদায়িক চক্র মেতে উঠেছিল, তা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। মৌলবাদীদের ভুয়া প্রচারে সংখ্যালঘুরা ভীত–সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। যদিও বাংলাদেশ সরকার সংখ্যালঘু হিন্দুদের সাহস জুগিয়ে ঘোষণা করেছে, যারা এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িত, তাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেওয়া হবে।

ছাত্র ও যুব সংগঠনের নেতারা আরও বলেন, পুলিশ শেষ পর্যন্ত জানতে পেরেছে মণ্ডপে পবিত্র কোরআন রেখেছিল ইকবাল হোসেন নামের এক মুসলমান যুবক। তাই তাঁরা দাবি জানাচ্ছেন, এ ঘটনার সঙ্গে আরও যারা জড়িত, তাদের খুঁজে বের করা হোক। গুজবের জন্য অভিযুক্ত ব্যক্তিদের কঠোর শাস্তি দেওয়া হোক।

রাজ্যের বামপন্থী রাজনৈতিক দল সিপিএম, সিপিআই, ফরোয়ার্ড ব্লক, আরএসপি, এসইউসিআই এবং আইসার ছাত্র–যুব সংগঠন এই প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। এ সময় তাঁরা বলেন, বাংলাদেশে অসংখ্য ধর্মনিরপেক্ষ মানুষ রয়েছে। তাই দুই বাংলার ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে আন্দোলন জোরদার করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *