সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ ;:গোসাবা :: ক্রমশ কমছে কি সুন্দরবন! জঙ্গল ছেড়ে বারে বারে লোকালযয়ের দিকে অগ্রসর হচ্ছে দক্ষিণ রায়। ক্রমাগত বাঘের আক্রমণের শিকার হতে হচ্ছে মৎস্যজীবীদের। খাবারের টানে সুন্দরবনের প্রান্তিক এলাকায় প্রতিনিয়ত হানা দিচ্ছে বাঘ।

সম্প্রতি কয়েকদিন আগে কুলতলী ব্লকে ভুবনেশ্বরী গ্রামে নস্কর ঘেরি এলাকায় ধানক্ষেতে বাঘের পায়ের ছাপ দেখতে পেয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে গ্রামবাসীরা। পরবর্তী সময় গোটা এলাকা ঘিরে ফেলা হয়েছিল জাল দিয়ে। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা ও স্নায়ুর লড়াইয়ের পর অবশেষে খাঁচাবন্দি হয় বাঘটি।

শনিবার সকাল থেকেই আবারও বাঘের আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোসাবার পাখিরালায় দ্বীপে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, স্থানীয় কয়েকজন মৎস্যজীবী শুক্রবার রাতে একটি পূর্ণবয়স্ক বাঘকে পিরখালি জঙ্গল থেকে নদী পেরিয়ে পাখিরালয় দ্বীপে ঢুকতে দেখে। এরপর থেকেই আতঙ্ক শুরু হয় গোটা দ্বীপ এলাকা জুড়ে।

শীতের মরশুমে সুন্দরবন ভ্রমণ করতে গোসাবা পাখিরালয় দ্বীপে ভিড় জমায় বহু পর্যটকেরা। পর্যটকদের থাকা-খাওয়ার জন্য গড়ে উঠেছে বহু হোটেল। এলাকায় বাঘ ঢোকার খবর পেয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে পর্যটকেরা। প্রশাসনের তরফ থেকে সমস্ত পর্যটকদের হোটেলের মধ্যে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আতঙ্কে সকাল থেকেই দরজা-জানালা বন্ধ হোটেল গুলির। ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছেছে বন আধিকারিকরা। তবে বাঘ জঙ্গলে ফিরেছে কিনা তা এখনও নিশ্চিত হতে পারছেনা বন বিভাগের কর্মীরা। চলছে বাঘের খোঁজে তল্লাশি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here