সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ ;: বাসন্তী :: বেসরকারি হাসপাতালে শিশু জন্মগ্রহণ করার জন্য দেওয়া হলো না টিকা। সরকারি উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের এক স্বাস্থ্য কর্মীর বিরুদ্ধে সরব শিশুর পরিবার। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বাসন্তীর ঝড়খালি এলাকায়। পরিবার সূত্রে জানা যায় , ঝড়খালি উপকূল থানার ত্রিদিব নগর গ্রামের বাসিন্দা নমিতা মজুমদার প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ভর্তি হয় বাসন্তী গ্রামীণ হাসপাতালে।

এরপর সেখানে অবস্থার অবনতি হলে , তাকে স্থানান্তরিত করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে থেকে আবার পরিবারের লোকজন নমিতা মজুমদারকে দ্রুত নিয়ে যায় বাসন্তী সোনাখালী রামকৃষ্ণ চ্যারিটেবিল হসপিটালে । গত ২৪ দিন আগে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেয় নমিতা মজুমদার।

আর সেই বেসরকারি হসপিটাল থেকে দেওয়া হয়নি কোন টিকা। এরপর ঝড়খালি ত্রিদিব নগর গ্রামে স্থানীয় একটি উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে টিকা দেওয়ার জন্য শিশুকে সঙ্গে করে নিয়ে যায় নমিতা মজুমদার ও তার স্বামী।

কিন্তু সেই উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে দেওয়া হয়নি কোন টিকা। ছুড়ে ফেলে দেওয়া হয় পোলিওর কার্ড। পাশাপাশি দুর্ব্যবহার করে ওই স্বাস্থ্য কর্মীর এমনটাই অভিযোগ শিশুর পরিবারের। তবে সমস্ত ঘটনা কথা অস্বীকার করে স্বাস্থ্যকর্মী ছন্দা সরকার পাশাপাশি বলে কোনো দুর্ব্যবহার করা হয়নি। তবে টিকা দেবনা এরকম কোন কথা বলা হয়নি তাদেরকে।

উল্টে স্বাস্থ্য কর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছে শিশুর পরিবার। এ বিষয়ে স্থানীয় বিধায়ক শ্যামল মন্ডল বলেন, এ ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়। আমি এ বিষয়ে বাসন্তী বিএমওএইচ কে নির্দেশ দেব যাতে ওই শিশু টিকা পায়।