কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদহ :: আর কয়েক দিন পর আসতে চলেছে বর্ষা। ইতিমধ্যে জল বাড়তে শুরু করেছে মালদা জেলার গঙ্গা-ফুলহরের। ফের পাড় ভাঙতে শুরু করেছে নদী গুলোর দুই পাড়। বছরের পর বছর দুই নদীর তাণ্ডবে ভিটেমাটি হারিয়েছেন এলাকার অনেক মানুষ।

মূলত মালদহের রতুয়া ১ নং ব্লকের দিয়ারা এলাকায় গঙ্গা-ফুলহরের ছোবল তীব্র থেকে তীব্রতর হয়েছে। বর্ষা মরশুমের সূচনায় কেমন আছেন দিয়ারার মানুষজন, খোঁজ নিল সংবাদ প্রবাহ ।

পাশাপাশি, রতুয়া-১ ব্লকের মহানন্দটোলা গ্ৰাম পঞ্চায়েতর একদিকে গঙ্গা আর অন্যদিকে ফুলহরের আগ্রাসনে প্রতি বছরই আয়তন হারাচ্ছে এই পঞ্চায়েত এলাকা। এমনকি নদীর পাড় ভাঙ্গনে ভিটেমাটি হারিয়েছেন সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েত এলাকার একাধিক গ্রামের অসংখ্য মানুষজন।

তাঁদের অনেকে এখনও মাথা গোঁজার তেমন আশ্রয় পাননি। দিন কাটাচ্ছেন নদীর ধারেই। আদরী মণ্ডল নামে একজন স্থানীয় বাসিন্দা  জানিয়েছেন, একসময় বাড়ি ছিল জঞ্জালি টোলায় ২০-২২ বিঘা জমিও ছিল। সব এখন নদীগর্ভে। তিনি আরো জানান, পাঁচ বছর হল এখানে এসেছি।

গঙ্গা বাঁধা হবে শুনেছিলাম কিন্তু আজ পর্যন্ত এখনো হয়নি। পঞ্চায়েত থেকে কোন সুবিধা পাইনি। ভাঙনে ভিটে হারিয়ে গ্রামের অনেকে বিভিন্ন জায়গায় চলে গিয়েছে। এখন কারও আর কিছু নেই।

যদিও, এ বিষয়ে স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যা উজ্জলা মন্ডল জানিয়েছেন, সরকারি দিক থেকে সব রকম সাহায্য করা হয়েছে যতটুকু পেরেছি ততটুকুই দিয়ে সাহায্য করেছি।