নয়াদিল্লি নিউ ব্যুরো :: সংবাদ প্রবাহ :: এক বছরের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকার পর আজ বুধবার থেকে আবার খুলে দেওয়া হচ্ছে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার কর্তারপুর করিডর। সংবাদ সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। গুরু নানকের জন্মবার্ষিকীর প্রাক্কালে শিখ পুণ্যার্থীদের জন্য করিডরটি খুলে দেওয়ার ঘোষণা করেছে ভারত সরকার। এই করিডর ব্যবহার করে ভারতীয় শিখরা পাকিস্তানে অবস্থিত গুরুদুয়ারা উপাসনালয় পরিদর্শনের সুযোগ পেয়ে থাকেন।

কর্তারপুর করিডর হলো ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার ভিসামুক্ত সীমান্ত পারাপারস্থল। গুরু নানকের ৫৫০তম জন্মদিন উপলক্ষে ২০১৯ সালে প্রথম এই করিডর চালু হয়। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে গত বছরের মার্চ থেকে এই করিডর বন্ধ থাকে।
গতকাল মঙ্গলবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ঘোষণা করেন, শুক্রবার গুরু নানকের জন্মবার্ষিকী উদ্‌যাপন উপলক্ষে বুধবার কর্তারপুর করিডর আবার খুলে দেওয়া হবে।

টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে অমিত শাহ লিখেছেন, ‘বিপুলসংখ্যক শিখ পুণ্যার্থীর কথা মাথায় রেখে বড় একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার কাল (বুধবার) থেকে কর্তারপুর সাহিব করিডর আবার খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’ ভারত সরকারের এ সিদ্ধান্ত দেশের মানুষের আনন্দ-উচ্ছ্বাস বাড়িয়ে দেবে বলে আশা প্রকাশ করেন অমিত শাহ।

দুই দেশের মধ্যে বিরোধপূর্ণ সম্পর্কের জেরে দশকের পর দশক ধরে পাকিস্তানের ভেতরে অবস্থিত গুরুদুয়ারা উপাসনালয়ে যাওয়ার সুযোগ পাননি ভারতীয় শিখরা। ২০১৯ সালে কর্তারপুর করিডর চালু হলে এ সুযোগ তৈরি হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here