ভূগোলে মাস্টার্স করেও মাটি কাটার শ্রমিক হতে চান এই নারী

নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: ৫৯ শতাংশ নম্বর পেয়ে মাস্টার্স পাশ করেছেন গীতশ্রী মান্না। বিষয় ছিল ভূগোল। পাশ করে বহু বছর চেষ্টার পরও জোটেনি সরকারি বা বেসরকারি কোনো চাকরি। এখন তিনি সংসার চালান হাঁস-মুরগি পালন ও সেলাই মেশিনে কাপড় সেলাই করে। কিন্তু যে আয় তা দিয়ে চলে না সংসার। তাই আবেদন করেছেন ১০০ দিনের কাজের জন্য জব কার্ডের।

২০০৭ সালের পর থেকে শুরু হয় চাকরির পরীক্ষায় বসা। গীতশ্রী জানালেন, তিন বার এসএসসি দিয়েছিলেন। একাধিক কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারি গ্রুপ সি ও ডি স্তরের পরীক্ষাও দেন। কিন্তু চাকরি হয়নি।এখন বয়স পেরিয়ে যাওয়ায় অনেক সরকারি পরীক্ষায় বসতে পারেন না। তবে সরকারি চাকরির আশায়, সম্প্রতি ইন্টিগ্রেটেড চাইন্ড ডেভেলপমেন্ট প্রোজেক্ট (আইসিডিএস) সুপারভাইজার পদের পরীক্ষাও দিয়েছেন তিনি।

২০১০ সালে তার বিয়ে হয়।স্বামী একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিতে কাজ করতেন। করোনার কারণে তাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া কাপড় সেলাই করে মাসে আয় হয় দেড় হাজার টাকার মতো। হাঁস-মুরগির ডিম বিক্রি করেও তেমন একটা আয় হয় না। তাই সংসার চালানো এখন কঠিন হয়ে গেছে।

গীতশ্রী বলেন, এখন সংসারের পরিস্থিতি দেখে আয়ের পথ না পেয়ে কয়েক দিন হলো ১০০ দিনের কাজের জন্য জব কার্ডের আবেদন করেছি। জব কার্ড হয়ে গেলে আমি ও স্বামী দু’জনেই মাটি কাটার কাজ করব। লজ্জা করলে তো পেট চলবে না।মাঝে মাঝে মনে হয়, আর চাকরির চেষ্টা করব না। এত দূর পড়াশোনা করে লাভ কী হলো বুঝতে পারি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 14 =