মহারাষ্ট্রের পুণে থেকে উদ্ধার হল মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর থেকে অপহৃতা এক যুবতী।

কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: মহারাষ্ট্রের পুণে থেকে উদ্ধার হল মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর থেকে অপহৃতা এক যুবতী। প্রায় দেড় মাস আগে তাকে অপহরণ করেছিল সামসি এলাকার পাঁচ যুবক বলে অভিযোগ। ঘটনার তদন্তে নেমে যুবতীর মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে সে পুণেতে রয়েছে বলে পুলিশ জানতে পারে। এরপর পুণেতে যান কুমেদপুর ফাঁড়ির এএসআই রাজীব পাল। তারপরেই যুবতীকে উদ্ধার করা হয়।

ওই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এক অপহরণকারীকেও পুলিশ গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, ধৃতের নাম রবিউল হক! তার বাড়ি চাঁচলের পূর্ব দুর্গাপুর এলাকায়। যুবতী ব্যাঙ্কে টাকা তুলতে যাওয়ার সময় তাকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ। দেড়মাস বাদে পুলিশের তৎপরতায় যুবতী উদ্ধার হওয়ায় খুশি পরিবারের লোকজন।

যুবতী এদিন বলেন, আমাকে কোথায় নিয়ে হচ্ছে জানালে ওরা নিজেদের গুন্ডা বলে দাবি করে। আমাকে বিয়ে করবে বলে জানায়। আমি বলি, কেন ওদের কাউকে বিয়ে করব। কিন্তু চাকু দিয়ে মারার ভয় দেখানোয় চুপ করে যাই।

হরিশ্চন্দ্রপুরের আইসি সঞ্জয় কুমার দাস বলেন, ঘটনায় জড়িত বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।যুবতীর দিদি বলেন, বোন ফিরে আসায় আমরা খুব খুশি। পুলিশের তৎপরতায় এটা সম্ভব হয়েছে। ওকে অনেক খুঁজলেও আমরা পাইনি। ওকে যে অপহরণ করা হয়েছে তা বুঝতে পারিনি। অভিযুক্তদের কঠোর সাজা চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 − 4 =