মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার পুলিশী তদন্ত শুরু

কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার। মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরের ঘটনা। অভিযোগ তাঁকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পুলিশ দেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠিয়েছে।

হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার মহেন্দ্রপুর গ্রাম-পঞ্চায়েতের বাগমারা গ্রামের ২৪বছরের নূরসেবা খাতুনের সঙ্গে বিয়ে হয় বরুই গ্রাম পঞ্চায়েতের পাঁচলা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল মান্নানের। তাঁদের ২ বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে।অভিযোগ কন্যা সন্তান প্রসবের পর থেকেই তীব্র অত্যাচার চালাতে থাকে নূরসেবা খাতুনের ওপর। নির্যাতন চালাতে থাকেন তাঁরা।

গ্রামের মোড়ল মাতব্বর থেকে শুরু করে পঞ্চ্যায়েত সদস্যরা গ্রামে সালিসিও বসায়। জরিমানা করে বড় শাস্তি, হুমকিও দেওয়া হয়। কিন্তু তবুও বাঁচানো যায় নি নূরসেবাকে। সকালে ফোন করে নিজের মেয়েকে পান নি বাবা রেজাউল আলি। উদবিগ্ন হয়ে ছুটে গেলে দেখেন মেয়ের ঝুলন্ত মৃত দেহ। শোকার্ত অবস্থাতেই পরে তিনি থানায় ছুটে যান। অভিযোগ দায়ের করেন।হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। পলাতক নূরসেবার স্বামী, শ্বশুর শাশুড়ি ভাসুর জা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − 2 =