কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: দাবি মতো মোটর বাইক না দেওয়ায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ স্বামী-‌সহ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্তরা। মৃতার পরিবারের অভিযোগ, মারধর করে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে তাঁদের মেয়েকে। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় বিছানাতে ফেলে রেখে পালায় অভিযুক্তরা। ঘটনাটি সোমবার   রাতে । মৃতার নাম রুবি বিবি(‌২১)‌।

ইংলিশবাজার থানার কেষ্টপুরে শ্বশুরবাড়ি তাঁর। বছর দুয়েক আগে পেশায় রাজমিস্ত্রি অভিযুক্ত স্বামী মেরাজুল শেখের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। তাঁদের ৮ মাসের পুত্রসন্তান রয়েছে। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মাস ছয়েক আগে অভিযুক্ত স্বামীএকটি মোটর বাইকের দাবি করে। কিন্তু গরিব শ্বশুরের পক্ষে বাইক দেওয়া সম্ভব হয় নি। মৃতার বাপের বাড়ি মালদা থানার বলাতুলি এলাকায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় রুবিকে মালদা মেডিক্যালে নিয়ে এলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে জানান।

মৃতার বাবা মৈবুল শেখ অভিযোগ করে বলেন, ‘‌বিয়ের পর থেকেই জামাই মেয়ের ওপর নানা অছিলায় অত্যাচার চালাতে থাকে। মাস ছয়েক আগে জামাই বাইক দাবি করে। আমার পক্ষে তা দেওয়া সম্ভব নয় আমি তা জানিয়ে দিয়েছিলাম। তারপর থেকে মেয়ের ওপর অত্যাচার বাড়িয়ে দেয়। জামাই ও শ্বশুরবাড়ির লোকেরা মিলে আমার মেয়েকে খুন করেছে।’‌

মৃত রুবির কাকা রফিকুল ইসলামের অভিযোগ, ‘‌খুন করার আগে আমাদের মেয়েকে মারধর করেছে। গোটা শরীরে রক্তের দাগ দেখতে পেয়েছি আমরা। আমরা নিশ্চিত মারধরের পর শ্বাসরোধ করে মেয়েকে খুন করেছে। আমরা থানায় সব জানিয়েছি। অভিযুক্তদের আমরা শাস্তির দাবি করছি।’‌ এই বিষয়ে ইংরেজবাজার থানায় অভিযোগ জানাবেন মৃতের পরিবার বলে জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here