রাত্রের অন্ধকারে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ পরপর 10 টি অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুরের অভিযোগে

নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: মুর্শিদাবাদ :: মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের দাঁড়িয়ে থাকা পরপর দশটি ১০২ অ্যাম্বুলেন্স এর কাঁচ রাত্রের অন্ধকারে ভাংচুরের অভিযোগ উঠল কয়েক জন দুষ্কৃতী বিরুদ্ধে।

মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ১০২ আম্বুলান্স মালিকদের দাবি গতকাল রাত্রি সাড়ে এগারোটার সময় অ্যাম্বুলেন্স চালকরা এসে দেখতে পান তাদের পার্কিংয়ে দাঁড়িয়ে থাকা পরপর দশটি ১০২অ্যাম্বুলেন্স এর কাঁচ ভাঙ্গা রয়েছে ।

তারপর তারা মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের এমএসডিপি অমিও কুমার বেরা এবং বহরমপুর থানায় খবর  দেয় । এই ঘটনার পর বিভাগীয় তদন্ত শুরু করেছে বহরমপুর থানার পুলিশ এবং মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ঘটনার জেরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় গোটা মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল চত্বরে ।

মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০২ আম্বুলান্স চালকরা জানিয়েছেন কিছুদিন আগে মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ১০২ আম্বুলান্স চালকদের সঙ্গে মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মাতৃমা নিশ্চয় যানের অ্যাম্বুলেন্স চালকদের একটি বিবাদ তৈরি হয় ।

মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ১০২ আম্বুলান্স চালকদের আশঙ্কা সেই বিবাদের জেরে মাতৃমা নিশ্চয় যান অ্যাম্বুলেন্স চালকরা তাদের অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুর করে থাকতে পারে । যদিও এখনও পর্যন্ত স্পষ্ট নয় কে বা কারা অ্যাম্বুলেন্সের কাচ ভাঙচুর করেছে। ঘটনার পর থেকে চাপা উত্তেজনা রয়েছে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ১০২ আম্বুলান্স চালকদের মধ্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − 9 =