লখিমপুর খেরিতে সেদিন গুলি হয়েছিল মন্ত্রিপুত্রের বন্দুক থেকেই – ফরেন্সিক রিপোর্টে উঠে এসেছে তার প্রমাণ।

নিউজ ব্যুরো :: সংবাদ প্রবাহ :: নয়াদিল্লি :: লখিমপুর খেরিতে সেদিন গুলি বর্ষণ হয়েছিল মন্ত্রিপুত্রের বন্দুক থেকেই। ফরেন্সিক রিপোর্টে উঠে এসেছে তার প্রমাণ। সোমবার এই ঘটনা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের ভর্ৎসনার মুখে পড়ে যোগী আদিত্যনাথের সরকার। তারপর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই জানা গেল এই চাঞ্চল্যকর তথ্য।  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রাষ্ট্রমন্ত্রী অজয় মিশ্রর ছেলে আশিস এবং তার বন্ধু অঙ্কিত দাসকে গ্রেফতারের সময় তিনটি আগ্নেয়াস্ত্র বাজেয়াপ্ত করেছিল পুলিশ। সেগুলো থেকেই গুলি চলেছিল বলে নিশ্চিত করেছে ফরেন্সিক সায়েন্স ল্যাব।

অবশ্য এই রিপোর্টের ব্যাপারে নীরব যোগী আদিত্যনাথের উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। লখিমপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, সেটি সরাসরি আদালতে পেশ করা হবে। যদিও রিপোর্টের তথ্যকে হাতিয়ার করেই বিজেপি তথা মোদি সরকারের দিকে আক্রমণ শানিয়েছে বিরোধীরা। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রের ইস্তফা দাবি তোলা হয়েছে। মন্ত্রিপুত্রের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস এমপি সৌগত রায়। জানিয়েছেন, গোটা ঘটনায় চুপ করে রয়েছেন দিল্লির বিজেপি নেতারা। এতে এটাই প্রমাণ হয় যে মন্ত্রীর মাথায় তাদের হাত রয়েছে।

সূত্রের খবর,কৃষকদের  দাবিকেই স্বীকৃতি দিয়েছে ফরেন্সিক সায়েন্স ল্যাবের ব্যালিস্টিক রিপোর্ট। সোমবার রাতে সেটি পুলিশের হাতে এসেছে। তাতে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, সেদিন আশিস মিশ্রের লাইসেন্সপ্রাপ্ত বন্দুক থেকে গুলি চালানো হয়েছিল। আশিসের সঙ্গী অঙ্কিত দাসের লাইসেন্সপ্রাপ্ত ‘রিপিটার গান’ এবং পিস্তলেও মিলেছে ‘ফায়ারিং মার্ক’। উল্লেখ্য, অঙ্কিত ইউপিএ-১ সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্য অখিলেশ দাসের ভাইপো।গত ১৫ অক্টোবর তিনটি আগ্নেয়াস্ত্র পাঠানো হয় ফরেন্সিক পরীক্ষার জন্য। আর সেই রিপোর্টই কার্যত কাল হলো মন্ত্রিপুত্রের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten + nineteen =