উদয় ঘোষ :: সংবাদ প্রবাহ :: বর্ধমান :: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপনের প্রকল্প আমরুত জল প্রকল্প, মূলত রাজ্যের সুপ্রিমোর তাঁর প্রথম লক্ষ্যেই ছিলো “সবার মাথায় ছাদ,সবার বাড়িতে জল” তারই ধারাবাহিকতায় প্রথম বাস্তবায়ন হলো শহর বর্ধমানের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের জিলাপী বাগান এলাকায়।

এদিন আমরুত জল প্রকল্পের প্রথম জল সংযোজন ও উধবোধন করা হলো কৃষ্ণা কুণ্ডুর বাড়িতে। আজকের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বর্ধমান পৌরসভার চেয়ার পার্সন প্রণব চ্যাটার্জী, ভাইস চেয়ার পার্সন আইনুল হক,আলপনা হালদার,প্রশাসক মন্ডলীর অন্যতম সদস্য উমা সাঁই,ও ডা: শঙ্খ শুভ্র ঘোষ সহ প্রাক্তন যুব সভাপতি রাসবিহারী হালদার সহ অন্যান্য বিশিষ্টরা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের ভাইস চেয়ার পার্সন আইনুল হক জানান,এই আমরুত জল প্রকল্পের জন্য প্রথম দামোদর নদীতে ইদিল পুরে খনন করার কাজ শুরু হয়েছিল,কার্যতঃ কিছু বালি মাফিয়াদের জন্য সেই প্রকল্প সরিয়ে ৯ কিলোমিটার দূরে অর্থাৎ সদর ঘাটে শুরু হয়ে আজ বাস্তবায়ন হয়েছে।

তিনি আরও বলেন এই মুহূর্তে ১০ টি জল রিসার্ভার মেশিন বসানো হয়েছে ।সুতরাং শহর বর্ধমানে প্রথম সাড়ে ছয় হাজার কানেকশন দেওয়া হবে, পরে ধাপে ধাপে চৌত্রিশ হাজার এবং পরে আটান্ন হাজার বাড়িতে আমরুত জলের কানেকশন দেওয়া হবে। প্রাক্তন যুব সভাপতি রাসবিহারী হালদার জল প্রকল্প নিয়ে বিশেষ আলোকপাত করেন। এখন দেখার বর্ধমানবাসীর বাড়ি বাড়ি এই আমরুত জল প্রকল্প কত দিনে সংযোজন পাবে? তবে এহেন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বর্ধমান শহরবাসী।