নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: রাজনীতি থেকে সরে যাচ্ছেন বলেও যেতে পারেননি। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। তাঁর তৃণমূল যোগের পরেই প্রশ্ন উঠতে থাকে যে তাহলে আসানসোলের সাংসদ পদ ছেড়ে দিচ্ছেন তিনি? যদিও এই প্রসঙ্গে জানিয়েছিলেন, খুব শীঘ্রই সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন। কিন্তু তাতেও জটিলতা। তাঁর ইস্তফা নাকি লোকসভা অধ্যক্ষ গ্রহন করছেন না। আর তা নিয়েই পুজোর আগে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়। যদিও অবশেষে সমস্ত বিতর্ক কাটাতে চলেছেন আসানসোলের এই সাংসদ।

জানা যাচ্ছে, মঙ্গলবারই ইস্তফা দিতে চলেছেন বাবুল সুপ্রিয়। আসানসোলের সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন তিনি। এমনটাই জানা যাচ্ছে। লোকসভা সচিবালয় সূত্রে খবর, বাবুলকে সকাল ১১টায় সময় দিয়েছেন স্পিকার ওম বিড়লা। সবকিছু ঠিক থাকলে স্পিকার ওম বিড়লার সঙ্গে দেখা করেই বাবুল তাঁর সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা পত্র জমা দেবেন। তবে বাবুলের ইস্তফা জমা দেওয়ার পরেই নতুন করে আরও একটি জল্পনা তৈরি হবে। কারণ বাবুলের ইস্তফা দেওয়ার পরেই আসানসোলে নতুন করে ভোটের সম্ভাবনা তৈরি হবে।

লোকসভা ভোটের অনেক দেরি। গত নির্বাচন থেকে এই রাজ্যে থেকে ১৮টি সাংসদ পায় বিজেপি। যার মধ্যে একটি ছিল আসানসোলও। যদিও আসানসোল থেকে বাবুল মোট দুবার জয় পায়। তবে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিলে নতুন করে ভোটের প্রস্তুতি শুরু হবে ওই কেন্দ্রে। ফলে আসানসোলে উপনির্বাচন ঘোষণা করা হয়। ফলে এই কেন্দ্র থেকে শাসকদল তৃণমূল নতুন কাকে প্রার্থী হিসেবে তুলে আনে। সেদিকেই নজর। তবে সূত্রের খবর, আসানসোল থেকে ফের বাবুলকেই প্রার্থী করতে পারে শাসকদল।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here