সুদেষ্ণা মন্ডল :: সংবাদ প্রবাহ ::সুন্দরবন :: আবারও সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে গুরুতর জখম হল এক কাঁকড়া শিকারি । আক্রান্তের নাম আশীষ দাস । ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার রাতে সুন্দরবনের ৭ নম্বর পীরখালি জঙ্গল লাগোয়া এলাকায়। গোসাবা ব্লকের বালি ২ নম্বর গ্রামপঞ্চায়েতের বিজয়নগর গ্রামে থেকে চারজনের সঙ্গে নৌকা করে সুন্দরবনের জঙ্গলের খাঁড়িতে কাঁকড়া ধরার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল আশীষ ।

রবিবার রাতে পীরখালি ৭ নম্বর জঙ্গল লাগোয়া নদীর খাঁড়িতে কাঁকড়া ধরার জন্য দোন ফেলছিল তারা । অন্ধকারে সুযোগ বুঝে জঙ্গল থেকে একটি বাঘ বেরিয়ে আসে। আচমকা ঝাঁপিয়ে পড়ে আশীষ এর উপর । তাকে টানতে টানতে গভীর জঙ্গলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

বাঘের মুখ থেকে সঙ্গীকে ফিরিয়ে আনতে চার সঙ্গী কাঁকড়া ধরার শিক আর নৌকার বৈঠা নিয়ে বাঘের গতি পথ আটকে প্রতিরোধ গড়ে তোলে। শুরু হয় বাঘে মানুষে খন্ড যুদ্ধ । শিকার ছাড়তে নারাজ বাঘ তার ভয়ঙ্কর রুদ্রমূর্তি ধারন করে হুঙ্কার করতে থাকে। শেষমেষ বেগতিক বুঝে দক্ষিণ রায় শিকার ছেড়ে গভীর জঙ্গলে গা ঢাকা দেয় ।

এক মুহূর্ত দেরী না করে সঙ্গীকে তাকে উদ্ধার করে নৌকায় তোলে । দ্রুত নৌকার হাল বেয়ে গোসাবায় পৌঁছায় তারা । সেখানে গোসাবা ব্লক গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায় চিকিৎসার জন্য। প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু হলেও অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক হওয়ায় রাতেই তাকে কলকাতা ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন চিকিৎসকরা । বর্তমানে আশাঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে ওই কাঁকড়া শিকারি ।